• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাজ্য বিভাজনের পর এই প্রথম কাশ্মীরে চালু ট্রেন পরিষেবা

kashmir
জম্মুর বানিহাল থেকে উত্তর কাশ্মীরের বারামুলা পর্যন্ত ট্রেন পরিষেবা শুরু হয়। প্রতীকী ছবি।

প্রায় তিন মাস পর ফের উপত্যকায় চালু হল ট্রেন পরিষেবা। জম্মু-কাশ্মীর ভেঙে নয়া দুই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল তৈরি হওয়ার পর এই প্রথম।

সোমবার সকালে উপত্যকায় কড়া নিরাপত্তার মধ্যে পরীক্ষামূলক ভাবে ট্রেন চালানো হয়। তার পর জম্মুর বানিহাল থেকে উত্তর কাশ্মীরের বারামুলা পর্যন্ত ট্রেন পরিষেবা শুরু হয়। এ দিন পরিষেবা ফের চালুর সময় হাজির ছিলেন নর্দান রেলের শীর্ষ কর্তারা। রেল কর্তারা জানিয়েছেন, এই পরিষেবা চালু হওয়ায় উপত্যকার বহু মানুষের সুবিধা হবে।

রেলের তরফে জানানো হয়েছে, সপ্তাহে ছ’দিন প্রায় ৩০ হাজার মানুষকে নিয়ে ১৫ জোড়া ট্রেন বানিহাল থেকে বারামুলা পর্যন্ত যাতায়াত করবে। রেলের এক শীর্ষ কর্তা সুধীর কুমার বলেন, ‘‘সাধারণ মানুষের সুরক্ষায় সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ করেছে। তা ছাড়া, কাশ্মীরিদের কাছে ট্রেনে সফর করাটাও বেশ সস্তার হয়।’’

আরও পড়ুন: পওয়ারকে রাজি করিয়ে ফেললেন উদ্ধব, দু’দলই এ বার সনিয়ার সমর্থনের অপেক্ষায়

আরও পড়ুন: ফি বৃদ্ধি নিয়ে ছাত্র বিক্ষোভে উত্তাল জেএনইউ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ

এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন কাশ্মীরের অনেকেই। গুলাম মুস্তাফা নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা বলেন, ‘‘ট্রেন চালু হওয়ায় আমাদের বেশ সুবিধা হবে। এখনকার পরিস্থিতিতে যাতায়াতেও বেশ অসুবিধা হয়। ফলে ট্রেন চালু হওয়ায় সময় বাঁচবে।’’ 

গত ৫ অগস্ট সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল ও জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করে নরেন্দ্র মোদী সরকার। তার পর থেকেই উপত্যকায় নিয়ন্ত্রণের কড়াকড়ি শুরু করা হয়। জারি করা হয় কার্ফু। বন্ধ করে দেওয়া হয় টেলিফোন-মোবাইল পরিষেবা, স্কুল-কলেজ-সরকারি অফিস। বন্ধ ছিল ট্রেন পরিষেবাও। এর পর ধীরে ধীরে যোগাযোগ ব্যবস্থার উপর থেকে নিয়ন্ত্রণের কড়াকড়ি উঠলেও এত দিন ট্রেন পরিষেবা বন্ধই ছিল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন