যাত্রী নিয়ে ভুবনেশ্বর থেকে সেকেন্দ্রাবাদ যাচ্ছিল বিশাখা এক্সপ্রেস। মাঝপথে ঝাঁকুনি দিয়ে থেমে গেল ট্রেন। কিন্তু যাত্রীসমেত বগি পিছনে ফেলেই ছুটে চলেছে ইঞ্জিন। বিষয়টি বোঝার কিছু ক্ষণ পরে হতভম্ব যাত্রীরাই খবর দেন রেলেকে। কেউ কেউ ভিডিয়োও তুলতে শুরু করেন। তার পর ঘটনাস্থলে আসেন রেলের আধিকারিকরা। ফিরিয়ে আনা হয় ইঞ্জিনটিকেও। তার পর সেই ইঞ্জিনের সঙ্গে ফের বগি জুড়ে দেওয়া হয়। ফের গন্তব্যের দিকে রওনা হয় ট্রেনটি।

গত সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে নরসিপতনম ও টুনি স্টেশনের মধ্যে। যাত্রীসমেত ট্রেনের বগিগুলিকে ফেলেই প্রায় ১০ কিলোমিটার ছুটে চলে গিয়েছিল ওই ইঞ্জিন। জানা গিয়েছে, ইঞ্জিনের সঙ্গে বগির সংযোগকারী রড ভেঙে যাওয়ার জন্যই এই বিপত্তি ঘটেছে।

তবে এই ঘটনায় কেউ আহত হননি। তবে ইঞ্জিন ছেড়ে চলে যাওয়ায় প্রায় দেড় ঘণ্টা দাঁড়িয়েছিল ট্রেনটি। মাঝপথে ট্রেন দাঁড়িয়ে পড়ায় ওই রুটের বেশ কিছু ট্রেনের বিলম্ব হয়। এই একই রকম ঘটনা ঘটেছিল এ বছর এপ্রিল মাসে। ভুবনেশ্বর-নয়াদিল্লি রাজধানী এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন আলাদা হয়ে গিয়েছিল বগি থেকে। 

আরও পড়ুন: চেন্নাইয়ের সৈকতে আছড়ে পড়া নীল ঢেউ নিয়ে কৌতূহল

আরও পড়ুন: তান্ত্রিকের পরামর্শে শুধু লাড্ডু খেতে দিচ্ছেন স্ত্রী! ডিভোর্স চাইলেন স্বামী