• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লাইফস্টাইল

‘নো সুগার’ ফুডেও রয়েছে ছদ্মবেশী সুগার!

শেয়ার করুন
Glucose
গ্লুকোজ: মানুষের রক্তে পাওয়া যায় এই সুগার। আর প্রসেসড ফুডে ব্যবহৃত সুগার পাওয়া যায় স্টার্চ থেকে।
Honey
মধু: মধুতে উচ্চমাত্রায় ফ্রুকটোজ রয়েছে। এক চা চামচ মধুতে ২২ ক্যালোরি শক্তি পাওয়া যায়, যেখানে এক চা চামচ চিনি থেকে পাওয়া যায় ১৬ ক্যালোরি।
Fructose
ফ্রুক্টোজ: সব্জি এবং ফলমূলে ফ্রুক্টোজ থাকে। মানুষ যদি খুব বেশি পরিমাণে ফ্রুক্টোজ খেয়ে থাকেন তা হলে তা ফ্যাটে পরিণত হয়ে দেহে জমে থাকে।
corn syrup
কর্ন সিরাপ: ভুট্টা বীজ থেকে কর্ন সিরাপ তৈরি হয়। এতেও উচ্চমাত্রায় ফ্রুক্টোজ রয়েছে।
Dextose
ডেক্সট্রোজ: গ্লুকোজের সঙ্গে খুব একটা তফাৎ নেই। মিষ্টি স্বাদের জন্য এই উপাদান প্রসেসড ফুডে ব্যবহার করা হয়।
sucrose
সুক্রোজ: কেক, আইসক্রিম এবং অন্যান্য মিষ্টিজাতীয় খাবারে সুগারের বিকল্প হিসাবে এটি ব্যবহার করা হয়। কিন্তু সুক্রোজও এক ধরণের সুগার।
maltose
মলটোজ: এমন খাবার যার নামের শুরু হচ্ছে মল্ট কিংবা মল্টেড দিয়ে (যেমন মল্টেড মিল্ক) তাহলে তাতে সুগারের বিকল্প হিসাবে মলটোজ ব্যবহার করা হয়েছে।

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
বাছাই খবর
আরও পড়ুন