• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দেশ

জনপ্রিয়তায় দীপিকা-প্রিয়ঙ্কা-অক্ষয়দেরও লজ্জা দেবে এই টিকটক স্টাররা!

শেয়ার করুন
১০ tiktok
কমবয়সি ভারতীয়দের মধ্যে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে চাইনিজ ভিডিয়ো শেয়ারিং অ্যাপ টিকটক। মজাদার ভিডিয়ো বানিয়ে ফেলে ফলোয়ার জোগাড়ের নেশায় মেতেছে ওই ভিডিয়ো অ্যাপ। এই ভিডিয়ো অ্যাপের জনপ্রিয়তা এতটাই যে ফলোয়ারদের নিরিখে জনপ্রিয় ফিল্মস্টারদেও পিছনে ফেলে দিয়েছেন এই কিশোর-কিশোরীরা।
১০ tiktok
আরিসফা খান: ৯ বছর বয়সে শিশু অভিনেতা ছিলেন আরিসফা। অভিনয় তাঁকে সেই জনপ্রিয়তা দিতে পারেনি, যা টিকটক দিয়েছে। এখন আসিরফা ১৬ বছরের। নিজের টিকটক অ্যাকাউন্টে ভিডিয়ো শেয়ার করে আরিসফা এখন ভীষণই জনপ্রিয়। এক কোটি ৭০ হাজার মানুষ তাঁকে অনুসরণ করছেন।
১০ tiktok
লাকি ডান্সার: প্রকৃত নাম আরহান খান। ১৪ বছর বয়স থেকে টিকটকে নাচের ভিডিয়ো শেয়ার করে আসছেন। এখন বয়স ১৭ বছর। ফলোয়ার সংখ্যা ১ কোটি ৭০ হাজার। টিকটকের জনপ্রিয়তার সৌজন্যে আরহান নিজের ডান্স ওয়ার্কশপও চালাচ্ছেন।
১০ tiktok
আদনান শেখ: সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ টিম ০৭-এর সদস্য আদনান। টিম ০৭ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভীষণই জনপ্রিয়। ওই গ্রুপের সদস্য আদনান প্রায়শই কমেডি ভিডিয়ো শেয়ার করেন টিকটকে। এক কোটি ৭০ হাজার। সোনাক্ষী সিনহার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের থেকে ২০ হাজার বেশি।
১০ tiktok
মঞ্জুল খট্টর: ২১ বছরের মঞ্জুলের সোশ্যাল মিডিয়া স্টার হওয়ার জার্নি শুরু হয়েছিল অনেক আগেই। ইউটিউব, ইনস্টাগ্রামে খুব একটা প্রভাব ফেলতে পারেননি মঞ্জুল। কিন্তু তাঁর কমেডি ভিডিয়ো টিকটক ফলোয়ারদের মন ছুঁয়ে যায়। হৃতিক রোশনের ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের সংখ্যা এক কোটি ২০ লক্ষ। মঞ্জুলেরও তাই।
১০ Tiktok
হাসনাইন খান: শাহরুখ খান, রণবীর সিংহের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমান তালে চলছেন হাসনাইন। তবে সম্প্রতি টিকটকের গাইডলাইন না মানার কারণে তাঁকে বহিষ্কার করেছে টিকটক সংস্থা। ঝাড়খণ্ডে গণপিটুনির ঘটনায় তবরেজ আনসারির মৃত্যু নিয়ে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছিলেন তিনি। তার পরই তাঁকে বহিষ্কার করে টিকটক।
১০ tiktok
অবনীত কউর: অবনীতকে প্রথম দেখা গিয়েছিল ২০১০ সালের ইন্ডিয়ান রিয়েলিটি ডান্স প্রতিযোগিতায়। তখন তাঁর বয়স ছিল ৯ বছর। ১৯ বছরের অবনীতের ফলোয়ার সংখ্যা শাহিদ কপূরের সমান। ১ কোটি ৩০ লক্ষ।
১০ tiktok
রিয়াজ আফরিন: বয়স মাত্র ১৫ বছর। এই বয়সেই ভিডিয়ো অ্যাপের সাহায্যে ভাইরাল এবং এক দক্ষ সোশ্যাল মিডিয়া অভিনেতা। না হলে কি আর এক কোটি ৮০ লক্ষ লোক তাকে অনুসরণ করে! যেখানে অনুষ্কা শর্মার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের সংখ্যাও তাই।
১০ tiktok
জিফপম: শুধু মানুষই নয়, এই ছোট আকারের পমেরিয়ানও একজন টিকটক স্টার। ফলোয়ার? ১ কোটি ৯০ লক্ষেরও বেশি। সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয়তার নিরিখে অক্ষয় কুমারকে ছুঁয়ে ফেলেছে। অক্ষয়ের ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের সংখ্যা এক কোটি ৯০ লক্ষ। এ ভাবে চলতে থাকলে আশা করা যায়, সোশ্যাল মিডিয়া ফলোয়ার সংখ্যার বিচারের আলিয়া ভট্টর সমান হতে খুব বেশি দিন লাগবে না জিফপমের।
১০১০ Tiktok
মিস্টার ফাইসু: ভারতীয় এই তরুণের টিকটক ফলোয়ারের সংখ্যা দু’কোটি ৩০ লক্ষেরও বেশি। যেখানে দীপিকা এবং প্রিয়ঙ্কার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার দু’কোটি ৪০ লক্ষ। হাসনাইন খানের সঙ্গে তিনিও তবরেজ আনসারির মৃত্যু নিয়ে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে টিকটকের গাইডলাইন অগ্রাহ্য করেন। তাঁকেও বহিষ্কার করেছে টিকটক সংস্থা। বহিষ্কারের আগে পর্যন্ত ফাইসু-ই ছিলেন ভারতের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় টিকটক স্টার।

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
বাছাই খবর
আরও পড়ুন