ব্রাজিলের বিখ্যাত মারাকানা স্টেডিয়ামে ভেনেজুয়েলাকে কোয়ার্টারফাইনালে ২-০ গোলে হারিয়ে আর্জেন্টিনা পৌঁছে গেল সেমিফাইনালে। বুধবার কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে তারা মুখোমুখি হবে আয়োজক দেশ ব্রাজিলের। শুক্রবার রাতের খেলার শুরুতে নড়বড়ে থাকলেও যত সময় এগিয়েছে ম্যাচের রাশ তত চলে গিয়েছে আর্জেন্টিনার পায়ে। নীল-সাদা জার্সিধারিদের গোল লক্ষ্য করে মারা ১৭টি শটের মধ্যে সাতটি গোলের মধ্যে থাকলেও জালে জড়িয়েছে মাত্র দু’টি। সেই দু’টি গোলের পিছনেই ছিল ম্যানচেস্টার সিটির স্ট্রাইকার আগুয়েরোর কৃতিত্ব। দশ মিনিটের মধ্যেই আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেন মার্টিনেজ। প্রথমার্ধের শেষে খেলা শেষ হয় ১-০ ব্যবধানে। এদিনের ম্যাচে আর্জেন্টিনার কোচ স্কালোনি অনেকদিন পর মেসিকে নিজের জায়গা অ্যাটাকিং মিডফিল্ডে রেখে, দুই স্ট্রাইকারে খেলা শুরু করেছিলেন।

গোটা ম্যাচে ভেনেজুয়েলার মাত্র একটি শট আটকাতে হয়েছে আর্জেন্টিনার গোলকিপার আরমানিকে। আর্জেন্টিনার হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন পরিবর্ত হিসেবে নামা লে সেলসো। এবারেও বল বাড়ান আগুয়েরো। আর্জেন্টিনা জিতলেও সেই ভাবে দাগ কাটতে দেখা যায়নি মেসিকে। খেলা শেষে মেসি স্বীকারও করে নেন যে, এবারের কোপা আমেরিকায় তিনি তাঁর সেরা খেলাটা খেলতে পারছেন না। তাঁর অভিযোগ, এবার কোপায় যে মাঠগুলি ব্যবহার করা হচ্ছে তা খেলার উপযোগী নয়। যদিও আর্জেন্টিনার সেমিফাইনালে যাওয়া তাতে আটকায়নি। সেলেকাও বাহিনীর মুখোমুখি হলে যদিও আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে ভাল খেলতেই হবে। কারণ নেইমার না থাকলেও ব্রাজিলের এবারের দল যথেষ্ট শক্তিশালী।

আজ অন্য কোয়ার্টার ফাইনালে উরুগুয়ে মুখোমুখি হবে পেরুর। তাদের মধ্যে জয়ী দলের সঙ্গে সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে গতবারের কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ান চিলি।