কথায় বলে, শুরুটা দেখেই বোঝা যায় গোটা দিনটা কেমন যাবে। আজ, শনিবার প্রথম ওয়ার্ম আপ ম্যাচে ভারতের ব্যাটিং বিপর্যয় দেখে ভক্তদের মনে কি সেরকমই কিছু মনে হচ্ছে?

যদিও ওয়ার্ম আপ ম্যাচ আর বিশ্বকাপের খেলার মধ্যে জমিন-আসমান পার্থক্য। প্রায় দেড় মাসের কাছাকাছি দেশের মাঠে আইপিএল খেলার পরে ইংল্যান্ডের মাটিতে নেমেছে ভারত। সেখানকার জলহাওয়ার সঙ্গে পরিচিত হতে, বাইশ গজের সঙ্গে বন্ধুত্ব করতেও খানিক সময় দরকার। বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম ম্যাচের আগে হাতে এখনও বেশ ক’দিন রয়েছে। তার মধ্যেই বিরাট কোহালিরা নিজেদের গুছিয়ে নেবেন বলেই আশা করছেন সমর্থকরা। কিউয়িদের বিরুদ্ধে পুরো ৫০ ওভার খেলতে না পারাটা কিন্তু চিন্তায় রাখছে দেশের ক্রিকেটভক্তদের।

কিউয়ি বোলারদের দাপটে ৩৯.২ ওভারে ভারত থেমে গেল মাত্র ১৭৯ রানে। দেশের নামী তারকারা ব্যাট হাতে এলেন আর গেলেন। সেই যে শুরুতেই ছন্দ কেটে গেল ব্যাটিংয়ের, তা আর ঠিক হল না। কিউয়ি বোলারদের মোকাবিলা করতে ব্যর্থ ভারত। দুই ওপেনার রোহিত শর্মা (২) ও শিখর ধওয়ন (২) পুরোদস্তুর ব্যর্থ।  কিছু বুঝে ওঠার আগেই দু’ উইকেট হারিয়ে ফেলে ভারত। দলের মেরুদণ্ড কোহালিও ব্যর্থ। মাত্র ১৮ রান করেন তিনি। লোকেশ রাহুল (৬), মহেন্দ্র সিংহ ধোনি (১৭), দীনেশ কার্তিক (৪)— এলেন আর গেলেন। রবীন্দ্র জাদেজা কিছুটা লড়লেন। ৫০ বলে ৫৪ রান করেন তিনি। সেই কারণেই রান কিছুটা ভদ্রস্থ দেখায়। একসময়ে তো ৯১ রানেই ভারত হারায় সাত-সাতটি উইকেট। সেখান থেকে নিজেদের কিছুটা গুছিয়ে নেয় ভারত। নিউজিল্যান্ডের বোলার ট্রেন্ট বোল্ট নেন ৪টি উইকেট, জেমস নীশামের শিকার তিন ভারতীয় ব্যাটসম্যান।