টানা তিন ম্যাচে জেতার পরে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ফিরোজ শাহ কোটলায় হেরে ধাক্কা খেয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। শনিবার কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত সেই ধাক্কা কাটিয়ে গুরুত্বপূর্ণ জয় তুলে নেওয়ার পরে দিল্লি ক্যাপিটালসের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার খুব খুশি। বিশেষ করে দলের সিনিয়র ব্যাটসম্যান শিখর ধওয়ন যে ভাবে ভয়ডরহীন ব্যাটিং করছেন, তার প্রশংসা করেছেন শ্রেয়স।

৪১ বলে ৫৬ রানের ইনিংসে কিংস ইলেভেনকে হারাতে সাহায্য করেন ধওয়ন। এ ছাড়া ৪৯ বলে ৫৮ রান করে অপরাজিত ছিলেন অধিনায়ক শ্রেয়স নিজেও। বিপক্ষের এই জোড়া হাফসেঞ্চুরিতে ক্রিস গেলের ৩৭ বলে ৬৯ রানের ইনিংসের পরেও জয় ছিনিয়ে নিতে পারেনি পঞ্জাব। পাঁচ উইকেটে জেতে দিল্লি। 

‘‘ধওয়নের জন্য আমাদের ইনিংসের শুরুটা খুব ভাল হয়েছিল। ফলে এর পরের ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজ হয়ে যায়। আমরা চাই টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা যেন ভয়ডরহীন ক্রিকেট খেলতে পারে। সেটাই হয়েছে। ধওয়ন গোটা মরসুমেই এই ক্রিকেটা খেলতে পারছে। সেটা দলকে সাহায্য করছে,’’ বলেন শ্রেয়স। পাশাপাশি তিনটে হারের পরে ঘরের মাঠে জয়ে ফিরতে পারার তৃপ্তিও জানাতে ভোলেননি তিনি। ‘‘তিনটে হোম ম্যাচে হারের পরে এটায় জিততে পেরে দারুণ লাগছে। যে ভাবে জয়টা এসেছে, সেটাই বেশি ভাল লাগছে।’’

শ্রেয়স নিজের ইনিংস নিয়েও কথা বলেন। যে ব্যাটিংয়ের সাহায্যে ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হন তিনি। ‘‘আমাদের প্রথম চার ব্যাটসম্যানের মধ্যে কোনও এক জনকে শেষ পর্যন্ত টিকে থাকতে হবে। আমি আজ এই দায়িত্বটা নিয়েছিলাম। আশা করব এর পরের ম্যাচগুলোতেও এটা পালন করে যেতে পারব,’’ বক্তব্য তাঁর।

সোমবার পরের ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে জয়পুরে খেলতে হবে দিল্লিকে। স্টিভ স্মিথ অধিনায়কত্বের দায়িত্ব নেওয়ার পরে জয়ে ফিরেছে রাজস্থান। হারিয়েছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়েই ঘরের মাঠে নামবে রাজস্থান। তবে রাজস্থান নিশ্চিত ভাবে এই ম্যাচে ছন্দে থাকা ইংল্যান্ডের জস বাটলারের অভাব অনুভব করবে। সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে যিনি দেশে ফিরে গিয়েছেন। তা ছাড়া পয়েন্ট টেবলে সাত নম্বরে এখন স্টিভ স্মিথের দল। ফলে প্লে-অফের দৌড়ে থাকতে জিততে মরিয়া হয়ে থাকবেন তারা। তাই পয়েন্ট টেবলে তিন নম্বরে থাকা দিল্লির চলতি মরসুমে অ্যাওয়ে ম্যাচের রেকর্ড দুরন্ত হলেও লড়াইটা সহজ নয়।