• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শেষ ষোলোয় বার্সেলোনা রাজপুত্রের রাজকীয় প্রত্যাবর্তন

1

চোট সারিয়ে দু’মাস পর প্রথম একাদশে নেমে জোড়া গোল তো করলেনই, সঙ্গে দলকেও জেতালেন ৬-১। এ ভাবেই রাজকীয় প্রত্যাবর্তন বার্সেলোনার রাজপুত্রের। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রোমার বিরুদ্ধে। যে জয়ে কাতালান ক্লাব পৌঁছে গেল টুর্নামেন্টের শেষ ষোলোতেও। তিনি— লিওনেল মেসি।

ন্যু কাম্পে মঙ্গলবার রাতে শুধু মেসিই নয়, দাপট ছিল লুইস সুয়ারেজের জোড়া গোলেরও। শেষ ছ’ম্যাচে যাঁর গোল ১০। পাশাপাশি গোল পান জেরার পিকে, আর আদ্রিয়ানো। অবশ্য দলের ছ’গোলের মধ্যে বার্সার বিখ্যাত ‘এমএসএন’ (মেসি-সুয়ারেজ-নেইমার) এ দিন পাঁচ গোলই পেতে পারত। যে ত্রিফলার এ বছর গোলের সংখ্যা ১২১ (মেসি ৪৩, সুয়ারেজ ৩৯, নেইমার ৩৯)। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে নেইমার পেনাল্টি ফসকান। গোল অবশ্য ফসকায়নি। গোলকিপারের হাত থেকে ফিরতি বল জালে জড়িয়ে দেন আদ্রিয়ানো।

দিন কয়েক আগে এল ক্লাসিকোয় ৪-০ রিয়াল মাদ্রিদকে বিধ্বস্ত করার ম্যাচে মাঠে নামলেও মেসি প্রথম দলে ছিলেন না। এ দিন তাই ৯০ মিনিট মাঠে থাকতে পারবেন কি না প্রবল আগ্রহ ছিল ভক্তদের। আর্জেন্তিনীয় মহাতারকা শুধু পুরো সময় মাঠেই থাকলেন না, দলকে নেতৃত্বও দিলেন। তাই রাজপুত্রের ‘কামব্যাক ম্যাচ’ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তোলপাড়। ম্যাচে তাঁর প্রথম গোল নিয়েও হইচই কম হচ্ছে না। যেটা আসে ২৭ পাসে!

বলা হচ্ছে বার্সার সামনে এখন লা লিগা হোক বা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, যে কোনও প্রতিপক্ষ মুখোমুখি হতে কাঁপছে। কেন না গত পাঁচ ম্যাচে কাতালান ক্লাব ১৮টি গোল দিয়েছে। গোল খেয়েছে একটি। তাই হয়তো ম্যাচের পর মেসি বলেছেন, ‘‘শেষ পর্যন্ত ম্যাচের স্কোর দেখে এবং আমি ৯০ মিনিট মাঠে থাকতে পেরেছি বলে দারুণ লাগছে। আমরা কখনই বলিনি বার্সেলোনা আমার উপর নির্ভরশীল। সেটা আমি যখন চোটের জন্য মাঠের বাইরে ছিলাম তখনই দলের খেলায় প্রমাণ হয়ে গিয়েছে।’’

এখানেই শেষ নয়, বার্সা মহাতারকা মনে করেন এ বছরের ব্যালন ডি’অরেও তাঁদের ত্রিফলার দাপট থাকবে। যে ট্রফি জয়ের দৌড়ে গত বার ক্লাবকে ত্রিমুকুট দেওয়া মেসি ফেভারিট। ‘‘আশা করছি, ব্যালন ডি’অরের ফাইনালিস্ট আমরাই হব। তবে সেটা নিয়ে আমাদের কোনও পাগলামি নেই। নেই আর লুইসও আমার সঙ্গে নিশ্চয়ই এক মত।’’ বার্সার পাশাপাশি এ দিন অলিম্পিয়াকোসকে ৪-০ হারিয়ে শেষ ষোলোয় যাওয়া নিশ্চিত করল বায়ার্ন মিউনিখও। জার্মান ক্লাবের হয়ে গোল করেন ডলগাস কোস্তা, রবার্ট লেভানডস্কি, টমাস মুলার ও কিংসলে কোমান।

 

 

 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন