৪০টার মধ্যে ৩৮ উইকেটই স্পিনারদের! পাল্লেকেলেতে শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ডের সদ্যসমাপ্ত দ্বিতীয় টেস্টে বিশ্বরেকর্ড করলেন স্পিনাররা। এর আগে ১৯৬৯ সালে নাগপুরে ভারত-নিউজিল্যান্ডের টেস্টে স্পিনাররা নিয়েছিলেন ৩৭ উইকেট।

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক সুরঙ্গা লাকমল নিয়েছিলেন এক উইকেট। এই টেস্টে পেসার হিসেবে তিনিই একমাত্র উইকেট নিয়েছেন। আর শ্রীলঙ্কার ওপেনার দিমুথ করুণারত্নে রান আউট হয়েছিলেন প্রথম ইনিংসে। এই টেস্টে এই দুই আউটের ক্ষেত্রেই শুধু স্পিনারদের ভূমিকা ছিল না। বাকি ৩৮ উইকেটই দিয়েছে স্পিনারদের দখলে।

১৪ নভেম্বর শুরু হওয়া টেস্টে ৫৭ রানে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ করে ফেলল ইংল্যান্ড। জো রুটের দল ২০০০-২০০১ মরসুমের পর এই প্রথম শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজ জিতল। উপমহাদেশে এটা ইংল্যান্ডের দশম টেস্ট সিরিজ জয়। এই টেস্টে ইংল্যান্ডের পেসাররা কোনও উইকেট নেননি। ইংল্যান্ডের ক্রিকেট ইতিহাসে এমন ঘটল তৃতীয়বার। যখন পেসাররা কোনও উইকেট না নিলেও টেস্ট জিতল তারা। ইংল্যান্ডের স্পিনাররা এই টেস্টে নেন ১৯ উইকেট।

আরও পড়ুন: টেস্টে ক্যাপ্টেন হওয়ার পর ধোনি কী করেছিলেন জানেন? ফাঁস করলেন লক্ষ্মণ

আরও পড়ুন: রোহিতকে থামানো অসম্ভব, বললেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল​

এই টেস্টেই প্রথমবার পাঁচ উইকেট নিলেন ইংল্যান্ডের বাঁ-হাতি স্পিনার জ্যাক লিচ। ম্যাচে তাঁর শিকার আট উইকেট। শ্রীলঙ্কার অফস্পিনার আকিলা ধনঞ্জয়ও নেন আট উইকেট। শ্রীলঙ্কারই দিলরুয়ান পেরেরা নেন সাত উইকেট। ইংল্যান্ডের মইন আলি নেন ছয় ছয় উইকেট। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরির জন্য ম্যাচের সেরা হন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)