• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শামির বাউন্সারে মাথায় চোট, ম্যাচ থেকেই ছিটকে গেলেন বাংলাদেশের লিটন ও নইম

liton das
হাসপাতালে লিটন দাস। নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

মহম্মদ শামির বাউন্সারে চোট পাওয়ায় ইডেনে গোলাপি বলের টেস্ট থেকে ছিটকে গেলেন বাংলাদেশের লিটন দাস ও নইম হাসান। যা সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে চাপে ফেলেন মোমিনুল হকের দলকে।

প্রথমে মহম্মদ শামি ও পরের ওভারে ইশান্ত শর্মার বল হেলমেটে আছড়ে পড়ায় এদিন লাঞ্চের ঠিক আগে ‘রিটায়ার্ড হার্ট’ হন লিটন দাস। আর ব্যাটিং করা সম্ভব হয়নি তাঁর পক্ষে। ইডেন থেকে দ্রুত লিটনকে নিয়ে যাওয়া হয় আলিপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে তাঁর স্ক্যান করা হয়। লিটনের পরিবর্ত হিসেবে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনে ব্যাট করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। তিনিই লিটনের ‘কনকাশন সাব’। 

বাংলাদেশের ইনিংসের ২০. ৩ ওভারে মহম্মদ শামির শর্ট বলে ঠিকঠাক পুল মারতে পারেননি লিটন। বাংলার পেসারের হাত থেকে ছুটে আসা বলটা আছড়ে পড়ে হেলমেটে। প্রথম বার আঘাত পাওয়ার পরেও খেলে যান  লিটন। পরের ওভারেই ইশান্ত শর্মার ডেলিভারিতে আবার আঘাত পান মাথায়।

এ বার আর উইকেটে দাঁড়াতে পারলেন না লিটন। অবসৃত লিটনকে (২৪ রান) নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। সেখানে তাঁর স্ক্যান করা হয়েছে। বাংলাদেশের মিডিয়া ম্যানেজার রাবিদ ইমাম জানান, ‘‘হাসপাতালে লিটনের স্ক্যান করা হয়েছে। ম্যাচের বাকি দিন আর খেলবে না লিটন। মেহেদি হাসান মিরাজ কনকাশন সাব হিসেবে খেলবে।’’ পরে অবশ্য ছেড়ে দেওয়া হয় লিটনকে। বেসরকারি হাসপাতালের রেডিয়োলজিস্ট সৌমিত্র ভট্টাচার্য এবং নিউরোলজিস্ট দীপ দাস তাঁকে দেখেন। সিটি স্ক্যানে মাথায় কোনও চোট ধরা পড়েনি লিটনের। তিনি সুস্থই আছেন। ফের চোট যাতে না লাগে, সেই কারণে আগাম সতর্কতা হিসেবে দুই ক্রিকেটারকে বিশ্রাম নিতে বলা হয়েছে। 

আরও পড়ুন: ফুটছে টইটম্বুর গ্যালারি, নতুন ইতিহাস গড়ল ইডেন

লিটন ছিটকে যাওয়ায় বড় সমস্যায় পড়ে গেল বাংলাদেশ। ভারতীয় পেসারদের বিরুদ্ধে তাঁকেই সাবলীল দেখাচ্ছিল। সেই লিটন না থাকায় দ্বিতীয় ইনিংসে আরও সমস্যায় পড়তে হবে বাংলাদেশকে। ম্যাচের বাকি দিনে মেহেদি শুধু ব্যাটিং ও ফিল্ডিং করতে পারবেন। বল করতে পারবেন না। কারণ উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান লিটনের পরিবর্ত হিসেবে এসেছেন মেহেদি।

বাংলাদেশ আরও সমস্যায় পড়ে যায় নইম হাসানও ছিটকে যাওয়ায়। ২২.১ ওভারে শামির দারুণ গতির বল নইমের হেলমেটে এসে লাগে। সেই সময়ে ভারতীয় দলের ফিজিয়ো নীতীন পটেলকে পরিচর্যার জন্য ডেকে আনেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি। এর জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসিত হচ্ছেন ভারত অধিনায়ক। সবাই বলছেন, ‘‘এটাই তো ক্রিকেটীয় স্পিরিট।’’

নইম (১৯ রান) অবশ্য অবসৃত হননি। পুরো সময় তিনি ব্যাট করেন। বাংলাদেশের ইনিংসের শেষে জানা যায় বাকি দিন আর খেলতে পারবেন না নইম। তাঁর বদলে কনকাশন সাব হিসেবে দলে এলেন তাইজুল ইসলাম। ভারতীয় বোলারদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পারেনি বাংলাদেশ। দু’ জন ক্রিকেটার ছিটকে যাওয়ায় সমস্যা আরও বাড়ল বাংলাদেশের।   

আরও পড়ুন: গোলাপি মিষ্টি! ঐতিহাসিক টেস্টের আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করলেন সৌরভ​

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন