• নিজস্ব সংবাদদতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মোহনবাগানই ভারতসেরা, জানিয়ে দিল লিগ কমিটি

ধরাছোঁয়ার বাইরে, তাই বিজয়ীর মুকুট লাভ

Mohun Bagan
চ্যাম্পিয়ন: কল্যাণীতে গত মাসে আইজল এফসিকে হারানোর পরে পয়েন্টের বিচারে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল মোহনবাগানের লিগ খেতাব। অপেক্ষা ছিল সরকারি ঘোষণার। শনিবার তাদের চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করে চলতি মরসুমের জন্য আই লিগ-সহ সমস্ত প্রতিযোগিতা বাতিল করে লিগ কমিটি। ফাইল চিত্র

কিবু ভিকুনা, মারিয়ো রিভেরারা এবার স্পেনীয় দূতাবাসকে অনুরোধ করতে পারেন তাঁদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। শনিবার তাঁদের সেই রাস্তা খুলে দিল ফেডারেশনের লিগ কমিটি। আই লিগ-সহ বর্তমান মরসুমের সব খেলা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভিডিয়োর মাধ্যমে আলোচনার পর মোহনবাগানকে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হল। লিগ বাতিল করে বাকি দশ দলকে পুরস্কার অর্থ ভাগ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয় সভায়। ইস্টবেঙ্গল যে দাবি করেছিল তা মানা হল না। লিগ টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও তাদের রানার্স ঘোষণা করা হয়নি। রাখা হল অন্য ক্লাবগুলির সঙ্গে একই পর্যায়ে।   

লিগ কমিটি এ দিন যে সিদ্ধান্তগুলি নিয়েছে, নিয়মানুযায়ী তা প্রস্তাব আকারে পাঠানো হবে ফেডারেশনের কর্মসমিতির কাছে। তারাই সরকারি ভাবে সিলমোহর দেবে। ফেডারেশনের এক শীর্ষ কর্তা দিল্লি থেকে ফোনে বললেন, “আইনজ্ঞের সঙ্গে আলোচনা করেছিলাম। সেই মতো দু-তিনদিনের মধ্যেই কর্মসমিতির সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে লিগ কমিটির সিদ্ধান্তকে বৈধতা দেওয়া হবে।’’ এ দিন বিকেল চারটে থেকে ভিডিয়ো কলের মাধ্যমে লিগ কমিটির সদস্যরা আলোচনা শুরু করেন। লিগ বাতিল করা হবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে ঠিক হয় চ্যাম্পিয়নশিপের পুরস্কার অর্থ (যা পাবে মোহনবাগান) ছাড়া বাকি অর্থ ভাগ করে দেওয়া হবে দশ দলের মধ্যে। লিগ যে-হেতু বাতিল হচ্ছে তাই অবনমনও থাকবে না। ইস্টবেঙ্গল চিঠি দিয়ে দাবি করেছিল মোহনবাগানকে চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হলে তাদের যেন রানার্সের স্বীকৃতি দেওয়া হয়। 

সূত্রের খবর, সভায় বিশেষ আমন্ত্রিত সদস্য হিসাবে সচিব কুশল দাস, চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার সুনন্দ ধর উপস্থিত থাকলেও লাল হলুদ বিনিয়োগকারীদের চিঠি নিয়ে আলোচনাই হয়নি। কারণ, লিগ টেবলে ইস্টবেঙ্গলকে টপকে যাওয়ার সুযোগ ছিল রিয়াল কাশ্মীর এবং গোকুলমের। আই লিগ নিয়ে আলোচনা শেষ হয়ে যায় পনেরো মিনিটের মধ্যেই। সমস্যা তৈরি হয় আই লিগের দ্বিতীয় ডিভিশন এবং বয়সভিত্তিক লিগগুলি নিয়ে। ঠিক হয়, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে মহামেডান, ভবানীপুরের মতো আই লিগ টু-র ক্লাবগুলিকে নিয়ে একটি টুর্নামেন্ট করে চ্যাম্পিয়ন ঠিক করা হবে। যারা খেলবে আই লিগ ওয়ানে। বয়সভিত্তিক লিগগুলি বাতিলই করা হয়েছে। লিগ কমিটির চেয়ারম্যান সুব্রত দত্ত বলেন, “মোহনবাগান টেবলে যেখানে ছিল সেখানে অন্য কোনও দল পৌঁছতে পারত না। সে জন্যই চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করার প্রস্তাব দিয়েছি।” 

আরও পড়ুন: আক্রমের ব্যাটে সেই ছয় মারেন মিয়াঁদাদ

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন