এই কিছু দিন আগেই মেক্সিকো ২০২৬ বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পাওয়ায় উষ্মা প্রকাশ করেছিলেন দিয়েগো আর্মান্দো মারাদোনা। বলেছিলেন, সে দেশে নাকি ফুটবল-সংস্কৃতিই নেই।

সোমবার হঠাৎই তাঁর কথায় উল্টো সুর। মারাদোনা এ বার উচ্ছ্বসিত সেই মেক্সিকো নিয়েই। বলে দিলেন, ‘‘ইতিমধ্যেই আমি মেক্সিকোর সমর্থক হয়ে পড়েছি। এ বার প্রথম রাউন্ডে দারুণ খেলেছে দলটা।  বুঝিয়ে দিয়েছে সুইডেনকেও হারানোর ক্ষমতা ওদের আছে।’’

মারাদোনার আরও দাবি, জার্মানির বিরুদ্ধে হামেস রদ্রিগেসদের জয়টা নিছক দুর্ঘটনা ছিল না। বিশ্বকাপে মেক্সিকোর গ্রুপের ছবিটা বেশ জটিল। বুধবার সুইডেন মেক্সিকোকে হারিয়ে দিলে এবং জার্মানি যদি দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে জিতে যায়, সে ক্ষেত্রে গ্রুপের তিনটি দলের পয়েন্ট সমান (ছয়) হয়ে যাবে। সে ক্ষেত্রে গোল পার্থক্য ইত্যাদি বিষয় বিবেচনা করে নির্ধারিত হবে গ্রুপের প্রথম দুটি দল কারা। 

আর যদি মেক্সিকো ও দক্ষিণ কোরিয়া জেতে তা হলে হামেসরাই গ্রুপের এক নম্বর দল হিসেবে শেষ ষোলোয় উঠবে। এমনিতে  সুইডেন ২০০৬ সালের পরে বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলেনি। মারাদোনা কিন্তু বেশ জোরের সঙ্গে যা দাবি করেছেন তার সারমর্ম হল, বুধবার জিতবে মেক্সিকোই।

মেক্সিকোকে নিয়ে তাঁর হঠাৎই এ হেন উচ্ছ্বাস দেখে মারাদোনার এই সে দিনে বলা মন্তব্যটির কথাই সবার মনে পড়ছে। তিনি বলেছিলেন, ‘‘মেক্সিকোর বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পাওয়ার কোনও যোগ্যতাই নেই। প্রতিবারই প্রতিযোগিতা শুরুর আগে ব্রাজিল, জার্মানির মতো ওদের নিয়েও হইচই হয়। অথচ প্রতিবারই ওরা খালি হাতে ফিরে যায়। আসলে ওরা খেলাটাকেই ভালবাসে না। আমি ভাল করেই জানি, ওখানে ফুটবলের কোনও সংস্কৃতিও নেই।’’

এ দিকে, সুইডেন শিবিরে এখনও জার্মানির কাছে শেষ ম্যাচে শেষ মুহূর্তের গোলে হারের হতাশা স্পষ্ট। বিশেষ করে টোনি খোসের ফ্রি-কিকে করা অসাধারণ গোলের পরে সুইডেনের রিজার্ভ বেঞ্চের কাছে এসে জার্মানদের বিশ্রী অঙ্গভঙ্গি নিয়ে চাপান-উতোর চলছেই। যে ঘটনার তদন্ত করছে ফিফাও। সুইডিশ কোচ ইয়াঁ আন্দারসঁ মেক্সিকো ম্যাচের আগে সাংবাদিক সম্মেলন করতে এসে বলেছেন, ‘‘সে দিন ওদের অসভ্যতার প্রতিবাদ না করলে বুঝতাম আমার মধ্যে আবেগ বলে কোনও বস্তুই নেই।’’ আর মেক্সিকো ম্যাচে জয়ের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী সুইডিশ কোচের প্রতিক্রিয়া, ‘‘মেক্সিকো খুব ভাল দল। ওদের বেশ কয়েক জন ফুটবলারের দারুণ স্কিলও আছে। আমার মনে হয়, এই ম্যাচটার ভাগ্য ঠিক করতে পারে সেটপিস। আমরা কিন্তু এই ব্যাপারটায় ওদের চেয়ে এগিয়ে থাকব।’’