Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

রাফা-রজারের মনে কী চলছিল, বুঝতে পারছি

নিজস্ব প্রতিবেদন
৩১ জানুয়ারি ২০১৭ ০৩:২১

রজার ফেডেরার বনাম রাফায়েল নাদাল— মেলবোর্নের সুপার ফাইনাল পুরোটা দেখতে পারেননি সচিন তেন্ডুলকর। কিন্তু ফাইনাল খেলার সময় দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মনের অবস্থা কেমন ছিল, ভালই বুঝতে পারছেন।

‘‘আমার কেরিয়ারে একটা সময় প্রচুর চোট পেয়েছি। কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে গিয়েছি। ২০০৫ বা ২০০৬ সালে একটা প্রেস কনফারেন্সে প্রশ্ন করা হয়েছিল, ‘আপনি কবে অবসর নিচ্ছেন?’ তার পরেই সেরা বছরগুলো পেয়েছি কেরিয়ারের। তারও পরে এসেছে জীবনের সবচেয়ে বড় মুহূর্ত। ২০১১ বিশ্বকাপ,’’ এ দিন বলেছেন সচিন। সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘আমি সত্যি সত্যিই তাই বুঝতে পারছিলাম ওই দু’জনের মনে কী চলছে। ম্যাচের পরে ফেডেরার তো বললও যে, ওরা কেউই বিশ্বাস করতে পারেনি এই দিন আসবে। কিন্তু ওরা খেলাটা উপভোগ করে গিয়েছে।”

ফেডেরারের ঘোষিত ভক্ত সচিন বলেছেন, সুইস এবং স্প্যানিশ তারকা দু’জনেই রবিবার প্রমাণ করেছেন, বিশ্ব টেনিসে কেন তাঁরা এখনও বড় শক্তি। ‘‘কোর্টে টিকে থাকার জন্য যা যা করা দরকার, ওরা করেছে। ফলে আমরা ওদের খেলা উপভোগ করতে পেরেছি। ওরা আমাদের যে সব মুহূর্ত উপহার দিয়েছে, সেগুলো চির জীবন আমাদের সঙ্গে থাকবে। আমি তো বরাবরই ফেডেরারের বিরাট ভক্ত,’’ বলেছেন সচিন। সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘ফাইনালটার অনেক আগেই দারুণ উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলাম।’’

Advertisement

ফাইনালের কতটা দেখেছেন? তাঁর জবাব, ‘‘আগে থেকে ঠিক করা কিছু কাজ ছিল, তাই পুরো ম্যাচটা দেখতে পারিনি। তবে যখনই পেরেছি, একটু একটু করে দেখেছি। মনে হচ্ছিল এই ফাইনালটা যেন শেষ না হয়।”

আরও পড়ুন

Advertisement