Advertisement
১৮ এপ্রিল ২০২৪
Abhimanyu Easwaran

হাল ছাড়তে রাজি নন, লাল বলের পাশাপাশি সাদা বলের ক্রিকেটেও বাড়তি নজর বাংলার অভিমন্যুর

অনেকেই ভেবেছিলেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ়‌ সফরের দলে তাঁকে সুযোগ দেওয়া হবে। কিন্তু শিকে ছেঁড়েনি অভিমন্যু ঈশ্বরণের ভাগ্যে। তিনি এ বার নজর দিতে চান সাদা বলের ক্রিকেটেও।

cricket

অভিমন্যু ঈশ্বরণ। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ২৪ জুলাই ২০২৩ ১৬:৪৯
Share: Save:

ঘরোয়া ক্রিকেটে গত কয়েক বছর ধরেই ধারাবাহিক ভাবে রান করে যাচ্ছেন তিনি। ভারত ‘এ’ দলের হয়েও ভাল খেলেছেন। অনেকেই ভেবেছিলেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ়‌ সফরের দলে তাঁকে সুযোগ দেওয়া হবে। কিন্তু শিকে ছেঁড়েনি অভিমন্যু ঈশ্বরণের ভাগ্যে। বাংলা দলের সতীর্থ মুকেশ কুমার টেস্ট খেলে ফেললেও অভিমন্যুকে এখনও অপেক্ষা করতে হচ্ছে। তবে বাংলার ক্রিকেটার জানিয়ে দিয়েছেন, এত সহজে হাল ছাড়তে চান না। জাতীয় দলে ঢোকার প্রচেষ্টা চলতেই থাকবে।

এক ওয়েবসাইটে সাক্ষাৎকারে অভিমন্যু বলেছেন, “হাল ছেড়ো না। এটাই আমার মন্ত্র। অনেক বছর ধরে চেষ্টা করে চলেছি। দেশের হয়ে খেলা আমার স্বপ্ন। সেই স্বপ্ন এত তাড়াতাড়ি শেষ হতে দিতে চাই না। আত্মবিশ্বাসই আমার অস্ত্র। ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে এগোতে চাই। আমাকে সাহায্য করার জন্যে কোচ, সতীর্থ, বন্ধুবান্ধব, পরিবার রয়েছে। তাঁরাই আমাকে আগামিদিনে এগিয়ে চলার শক্তি জোগাবে।”

সাদা বলের ক্রিকেটে অভিমন্যুর রেকর্ড খুব একটা খারাপ নয়। লিস্ট এ ক্রিকেটে ৭৮টি ম্যাচ খেলে ৩৩৭৬ রান করেছেন। কিন্তু লাল বলের তকমাটা হঠাৎ করেই তাঁর নামের পাশে সেঁটে বসেছে। তাই সাদা বলের ক্রিকেটে এশিয়ান গেমস বা ইমার্জিং কাপে তাঁকে বিবেচনাই করা হয় না। অভিমন্যু জানিয়েছেন, লাল বলের ক্রিকেটই তাঁর প্রধান লক্ষ্য হলেও সাদা বলের ক্রিকেটেও জাতীয় দলের জার্সি গায়ে চাপাতে চান।

অভিমন্যুর কথায়, “শুধু টেস্ট ক্রিকেটের জন্যেই খেলব এমনটা মোটেই আমার লক্ষ্য নয়। ঘরোয়া ক্রিকেটে সব ফরম্যাটেই গত ১০ বছর ধরে খেলছি। তাই অন্য ফরম্যাটেও খেলতে পারি। সাদা বলের ক্রিকেটে আমার পরিসংখ্যান খারাপ নয়। ধারাবাহিক ভাবে রান করেছি। সব ফরম্যাটেই ভাল খেলা আমার লক্ষ্য। নিজের দক্ষতা এবং বিভিন্ন পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ক্ষমতা তৈরি করতে চাই। যে ফরম্যাটেই খেলি, দলের জন্যে অবদান রাখতে চাই।”

চেতেশ্বর পুজারা বা হনুমা বিহারির মতো তাঁর পাশেও লাল বলের বিশেষজ্ঞের যে তকমা এঁটে রয়েছে, সেটা কি তাঁর ক্ষতি করছে? অভিমন্যুর মতে, এই ধারণা ভুল। আইপিএলই তা প্রমাণ করেছে। তিনি বলেছেন, “নিজের দক্ষতা প্রমাণ করার জন্যে আইপিএলের থেকে ভাল মঞ্চ আর হয় না। কিছু কিছু ক্রিকেটারকে টেস্ট বিশেষজ্ঞ হিসাবে দেগে দেওয়া হয় ঠিকই, তার মানে এই নয় যে তারা অন্য ফরম্যাটে খেলতে পারবে না। আইপিএল দেখুন। টেস্ট বিশেষজ্ঞরা সেখানে কত ভাল খেলেছে। খেলার মধ্যে বৈচিত্র থাকলে সবই সম্ভব। পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Abhimanyu Easwaran BCCI
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE