Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Cristiano Ronaldo: ওল্ড ট্র্যাফোর্ড মাতিয়ে রাজকীয় প্রত্যাবর্তন রোনাল্ডোর

সুব্রত ভট্টাচার্য
কলকাতা ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৯:১৪
রোনাল্ডো

রোনাল্ডো
ছবি: সংগৃহীত।

দু’সপ্তাহ পরে শনিবার ফের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ শুরু হওয়ার দিনে আমি মুখিয়ে ছিলাম ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড জার্সি গায়ে রোনাল্ডোর রাজকীয় প্রত্যাবর্তন দেখতে।

যে ম্যাচে ঘটনার ঘনঘটা কম ছিল না। ১২ বছর ১১৮ দিন পরে প্রিয় তারকাকে দেখতে যেমন ম্যান ইউয়ের ঘরের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ভিড় করেছিলেন ভক্তেরা, তেমনই খেলা শুরুর আগে স্টেডিয়ামের উপর দিয়ে উড়ে গিয়েছিল এক বিমান। যার সঙ্গে বাঁধা ফেস্টুনে লেখা ছিল ‍‘#বিলিভ ক্যাথরিন মায়োরগা’। ইনি সেই মহিলা, যিনি রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে এক যুগ আগে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিলেন। পরে রোনাল্ডো এই বিতর্ক থেকে রেহাই পায় আদালতের বাইরে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিয়ে। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে সেই পুরনো দুঃসহ স্মৃতি খুঁচিয়ে দিতে স্থানীয় নারীবাদী সংগঠনের তরফে এই পদক্ষেপই করা হয়েছিল। যদিও রোনাল্ডো সেই স্মৃতিচারণের বদলে মনে করাল তার ফুটবল প্রজ্ঞা। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে প্রত্যাবর্তন স্মরণীয় করে রাখল জোড়া গোলে ম্যান ইউয়ের ৪-১ জয়ে।বাকি দুই গোলদাতা ব্রুনো ফার্নান্দেস এবং জেসে লিনগার্ড। নিউক্যাসলের হয়ে ব্যবধান কমায় হাভিয়ের ম্যানকুইয়ো। এই জয়ের ফলে চার ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকায় এক নম্বরে উঠে এল ওয়ে গুন্নার সোলসারের প্রশিক্ষণাধীন দল।

পল গাসকোয়েন সেই শ্রেষ্ঠদের অন্যতম, যে আপনাকে চেয়ার থেকে তুলে দাঁড় করিয়ে দিতে পারে। তাঁর আত্মজীবনীতে এমন কথাই লিখেছেন স্যর আলেক্স ফার্গুসন। যাঁর একটা ফোনেই এক যুগ পরে পুরনো ক্লাব ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডে এ বার খেলতে চলে এসেছে ক্রিশ্চিয়ানো! আর প্রত্যাবর্তনেই আমার মতো গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা ফুটবলপ্রেমীদের চেয়ার থেকে তুলে দাঁড় করিয়ে দিল গাসকোয়েনের মতোই। সি আর সেভেন ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পা দিতেই যেন জেগে উঠেছে রেড ডেভিলস দর্শকেরা! ঠিক ১২ বছর আগের মতো!

Advertisement

এখনও মনে আছে, ২০০৩ সালের ১৬ অগস্ট দিনটা। ম্যান ইউয়ের জার্সি গায়ে সে দিনই প্রথম মাঠে নেমেছিল রোনাল্ডো । বোল্টনের বিরুদ্ধে সেই ম্যাচে ম্যান ইউয়ের ৪-০ জয়ের ম্যাচে জোড়া গোল ছিল রায়ান গিগসের। নিউক্যাসলের বিরুদ্ধে শনিবার রোনাল্ডোর প্রত্যাবর্তন ম্যাচে দেখলাম সেই গিগস গ্যালারিতে। ও হয়ত স্মৃতিমেদুর হয়ে পড়তে পারে!

ম্যান ইউয়ের হয়ে শেষ ম্যাচটা রোনাল্ডো খেলেছিল ২০০৯ সালের ২৭ মে। এক যুগ পরে পুরনো দলের জার্সি গায়ে দিয়েই রোনাল্ডো ছন্দে। ৩৬ বছর বয়স। মাদ্রিদ, তুরিন, ম্যাঞ্চেস্টার, লিসবন যে শহরেই খেলুক, পাল্লা দিয়ে গোল করাটা যেন ওর মজ্জাগত।

যে ম্যান ইউ এতদিন পল পোগবা, ব্রুনো ফার্নান্দেসরা থাকা সত্ত্বেও ছন্দহীনতায় ভুগত, সেই দলটাকেই যে জলতরঙ্গের মতো ছন্দে বাজল রোনাল্ডোকে পাশে পেয়ে। এই রোনাল্ডো কিন্তু এ বার পোগবাদের পাশে পেয়ে আগের চেয়েও ভয়ঙ্কর।

নিউক্যাসল ম্যানেজার স্টিভ ব্রুস পাঁচ ব্যাকের সামনে চার মিডফিল্ডার রেখে গোলের সামনে মানব প্রাচীর তৈরি করেছিলেন। কিন্তু রোনাল্ডো সেই জাল কেটে গোল পেল প্রথমার্ধের সংযুক্ত সময়ে। গ্রিনউডের শট বিপক্ষ গোলকিপারের হাত থেকে বেরিয়ে এসেছিল। ছিটকে আসা বল অনুসরণ করে ১-০ করে রোনাল্ডো। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে প্রতি-আক্রমণ ১-১ করে বিপক্ষের হাভিয়ের। কিন্তু ৬২ মিনিটে পল পোগবা ও লিউক শ-এর পা ঘুরে আসা বল থেকে দ্বিতীয় গোল রোনাল্ডোর। দু’টি গোলের ক্ষেত্রেই গোলরক্ষকের ভুল হলেও রোনাল্ডোর কৃতিত্বকে খাটো করা যাবে না।

৮০ মিনিটে ব্রুনো ফার্নান্দেস উজ্জীবিত ফুটবলের সঙ্গে দূরপাল্লার শটে ৩-১ করে। আর লিনগার্ড সংযুক্ত সময়ে ৪-১ করে স্মরণীয় করে রাখে রোনাল্ডোর প্রত্যাবর্তন।

দিনের অন্য ম্যাচে, পিয়ের-এমেরিক আবুমেয়ংয়ের গোলে নরউইচের বিরুদ্ধে ১-০ জিতেছে আর্সেনাল। ক্রিস্টাল প্যালেসের কাছে ০-৩ হেরেছে টটেনহ্যাম। ম্যান সিটি ১-০ হারিয়েছে লেস্টার সিটিকে।

আরও পড়ুন

Advertisement