Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

মিনার্ভা এফসি-র দিকে আজ তাকিয়ে আমনারা

ইস্টবেঙ্গলের কাছে ৭-১ গোলে হারের পর চেন্নাই সিটি এফ সি-র হাল খুবই খারাপ। তা সত্ত্বেও তাদের ছোট করে দেখতে নারাজ মিনার্ভা কোচ খগেন সিংহ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
০২ মার্চ ২০১৮ ০১:২৫

শিলংয়ের হোটেলে বসেই আজ, শুক্রবার মিনার্ভা পঞ্জাব বনাম চেন্নাই সিটি এফসি-র ম্যাচ দেখবে ট্রফি প্রত্যাশী ইস্টবেঙ্গল।

মঙ্গলবার পাহাড়ে খেলা খালিদ জামিলের দলের। প্রতিপক্ষ লাজং এফসি। সেই ম্যাচ জেতার প্রতিজ্ঞা নিয়েই শুক্রবার সকালে কলকাতা ছাড়ছেন মহম্মদ আল আমনা, ডুডু ওমেগবেমিরা। কিন্তু নিজেদের ম্যাচ জেতার পাশাপাশি কোয়েম্বত্তূরের দিকেও তাঁকিয়ে থাকতে হবে অর্ণব মণ্ডলদের। কারণ আই লিগ শীর্ষে থাকা মিনার্ভা পয়েন্ট নষ্ট না করলে জিতেও কোনও লাভ হবে না লাল-হলুদের।

ইস্টবেঙ্গলের কাছে ৭-১ গোলে হারের পর চেন্নাই সিটি এফ সি-র হাল খুবই খারাপ। তা সত্ত্বেও তাদের ছোট করে দেখতে নারাজ মিনার্ভা কোচ খগেন সিংহ। তিনি বলে দিয়েছেন, ‘‘ওরা যথেষ্ট ভাল দল। নিজেদের মাঠে খেলার সুবিধা পাবে। আমাদের ছেলেরা মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে নামবে। সবাইকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করা হচ্ছে।’’ সঙ্গে চেঞ্চো গেলসেনদের টিমের কোচের সংযোজন, ‘‘লিগ টেবলের পরিস্থিতি দেখলেই বোঝা যাবে, চেন্নাইয়ের কাছে এই ম্যাচ কতটা গুরুত্বপূর্ণ। ওরা সব শক্তি দিয়ে আমাদের পয়েন্ট কাড়ার চেষ্টা করবে। সেটা এটা ধরে নিয়েই আমরা তৈরি হচ্ছি।’’

Advertisement

লিগ টেবলের পরিস্থিতি যা তাতে অবনমন প্রায় নিশ্চিত চেন্নাইয়ের। কারণ ফেডারেশনের নিয়মানুযায়ী নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি দল গোকুলম নামবে না। ফেডারেশনের নিজের দল ইন্ডিয়ান অ্যারোজও নামবে না। ফলে সুন্দররাজনের দলের উপরেই খাঁড়া ঝুলছে। চেন্নাই কোচ এ দিন সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন, ‘‘ইস্টবেঙ্গলের কাছে বিশ্রী হারের পর এই ম্যাচটা আমাদের কাছে চ্যালেঞ্জ। কারণ ইস্টবেঙ্গলের চেয়ে মিনার্ভা ভাল দল। ওদের হারাতে কলকাতার ম্যাচ যে দুর্ঘটনা সেটা প্রমাণ করা যাবে।’’ চেন্নাই কোচ অবশ্য এ দিনও আক্ষেপ করেছেন, ‘‘লিগের শুরুটা ভাল করলেও শেষটা আমাদের খুব খারাপ হল।’’

মুখে না বললেও খালিদ-সহ পুরো ইস্টবেঙ্গল টিম অবশ্য চাইছে সুন্দররাজনের টিম চেন্নাই আজ মিনার্ভাকে বিপদে ফেলুক। খেতাবের লড়াইতে থাকা ইস্টবেঙ্গলে বৃহস্পতিবার দোলের দিনও ছুটি ছিল না ফুটবলারদের। বারাসতে প্রায় ঘন্টাখানেক অনুশীলন করেন আল আমনারা। যে হেতু শিলংয়ে কৃত্রিম ঘাসের মাঠে খেলা, তাই পরপর দু’দিন বারাসতে অনুশীলন হল ইস্টবেঙ্গলের। লাজংয়ের বিরুদ্ধে বিকেল সাড়ে পাঁচটায় খেলা। এখনও ঠান্ডা রয়েছে শিলংয়ে। রাতের দিকে তা বাড়ছে। তার উপর কার্ডের জন্য টানা ষোলো ম্যাচ খেলা ব্রাজিলিয়ান স্টপার এদুয়ার্দো ফেরিরাকে এই ম্যাচে পাচ্ছে না লাল-হলুদ শিবির। ইস্টবেঙ্গল কোচ এ দিন অনুশীলনের পর বলে দিয়েছেন, ‘‘এডু থাকলে ভাল হতো। কিন্তু অর্ণব এবং গুরবিন্দরও ভাল ফর্মে আছে। তা ছাড়া সালামরঞ্জনও তৈরি।’’ ঘরের মাঠে বড় ব্যবধানে জিতলেও শিলংকে ছোট করে দেখতে নারাজ খালিদ। বলে দিয়েছেন, ‘‘ওদের টিমে অনূর্ধ্ব-২২ এর আট জন ফুটবলার খেলছে। খুব ভাল দল। মিনার্ভার বিরুদ্ধেও ওরা ভাল খেলেছিল।’’ খালিদ জানেন, শিলং টিমটার আসল অস্ত্র গতি। আর ইউসা কাতসুমিও বলে দিলেন, ‘‘কোচকে বলেছি শুরু থেকেই গোলের জন্য ঝাঁপাতে হবে। ওরা আমাদের গতির সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার চেষ্টা করবে। সে জন্য আগে গোল করে দরকার। এত কাছে এসে লিগ হাতছাড়া করতে চাই না।’’

আরও পড়ুন

Advertisement