Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

কাতার বিশ্বকাপে মানবাধিকার নিয়ে সরব ফুটবলাররা

ইউরোপে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে গ্রুপ ‍‘এফ’-এর ম্যাচে রবিবার রাতে খেলা ছিল ডেনমার্ক বনাম মলডোভার।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ৩০ মার্চ ২০২১ ০৮:০৭
— ছবি সংগৃহীত

— ছবি সংগৃহীত

বছর ঘুরলেই ২০২২ সালের নভেম্বরে কাতারে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ফুটবল। কিন্তু সেখানে পরিকাঠামো নির্মাণকার্যে অংশ নেওয়া পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজের পরিবেশ, বাসস্থান বা চিকিৎসার ক্ষেত্রে মানবাধিকার রক্ষা করা হচ্ছে না বলে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। এই কারণে সম্প্রতি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচ শুরুর আগে নরওয়ে, নেদারল্যান্ডস ও জার্মানি প্রতীকী প্রতিবাদ দেখিয়েছিল। এ বার সেই তালিকায় যুক্ত হল
ডেনমার্কের নামও।

ইউরোপে বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে গ্রুপ ‍‘এফ’-এর ম্যাচে রবিবার রাতে খেলা ছিল ডেনমার্ক বনাম মলডোভার। যে ম্যাচে ডেনমার্ক নজির গড়ে জেতে ৮-০ ফলে। কিন্তু সেই ম্যাচ শুরুর আগে কাতার বিশ্বকাপে পরিযায়ী শ্রমিকদের পরিস্থিতি সংক্রান্ত কারণে মাঠেই প্রতিবাদ দেখায় ডেনমার্ক দল। লাল জার্সি পরে খেলা শুরুর আগে মাঠে নেমে সারিবদ্ধ হয়ে দাঁড়ান ডেনমার্কের ফুটবলারেরা। তাঁদের জার্সির বুকে লেখা ছিল, ‍‘‍‘ফুটবল পরিবর্তনকে সমর্থন করে।’’ ডেনমার্কের জাতীয় ফুটবল সংস্থা জানিয়েছে, ওই লাল জার্সিতে ফুটবলারদের সাক্ষর করিয়ে নিলাম করা হবে। তা থেকে যে অর্থ সংগৃহীত হবে, তা কাতারের পরিযায়ী শ্রমিকদের সুরক্ষার জন্য মানবাধিকার সংগঠন প্রকল্পে দান করা হবে।

এর আগে শনিবার রাতে নেদারল্যান্ডসের জাতীয় ফুটবল দলও বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচ শুরু হওয়ার আগে এই বিষয় নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিল। তাঁদের জার্সিতেও ডেনমার্কের মতো একই স্লোগান লেখা ছিল। তারও আগে নরওয়ে ও জার্মানির ফুটবলারেরা কাতারের পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য মানবাধিকার রক্ষার দাবি জানিয়ে একই ভাবে ম্যাচ শুরুর আগে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। শনিবার রাতে তুরস্কের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে ফের একই বিষয় নিয়ে প্রতিবাদ জানান
নরওয়ের ফুটবলারেরা।

Advertisement

রবিবার বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে রোমানিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচ ছিল জার্মানির। বুখারেস্টে সেই খেলার আগে দলগত ভাবে ছবি তোলার সময়ে আরও সুক্ষ্মভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছেন জার্মান ফুটবলারেরা। যেখানে নিজেদের জার্সি উল্টো করে পরেছিলেন তাঁরা। ফলে পিঠে লেখা ফুটবলারদের নাম ও জার্সি নম্বর সামনে চলে এসেছিল। সেই ছবি দলের সরকারি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করে লেখা হয়, ‍‘‍‘আমরা ৩০-এর পক্ষে’’। সঙ্গে ছিল হ্যাশট্যাগ (সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ কোনও বিষয় উল্লেখ করতে গেলে এই চিহ্ন দিতে হয়) ‍‘হিউম্যানরাইটস’ (মানবাধিকার)।

কিন্তু ‘৩০-এর পক্ষে’ বলতে কী? জার্মান জাতীয় দলের গোলকিপার ম্যানুয়েল ন্যয়ার তাঁদের দেশের সম্প্রচারকারী সংস্থায় এই ‍‘৩০’-এর ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, মানবাধিকারের যে বিশ্বজনীন ৩০টি অনুচ্ছেদের ঘোষণা রয়েছে, সেটিরই উল্লেখ করা হয়েছে তাঁদের প্রতিবাদ কর্মসূচিতে। তাঁর কথায়, ‍‘‍‘আমরা সবাই মাঠে ও মাঠের বাইরে ন্যায়বিচারের পক্ষে। আর আমরা মানবাধিকারের বিশ্বজনীন ৩০টি অনুচ্ছেদ প্রয়োগের পক্ষে।’’

ন্যয়ারের চেয়েও প্রতিবাদের স্বর জোরালো জার্মান মাঝমাঠের গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার জোসুয়া খিমিচের গলায়। তাঁর মতে, ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ বয়কট করার দাবি জানাতে ১০ বছর দেরি হয়ে গিয়েছে। গত মাসেই ‍ইংল্যান্ডের একটি সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছিল এই রিপোর্ট যে, পরিযায়ী শ্রমিকদের মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হয়েছে কাতারে বিশ্বকাপের পরিকাঠামো নির্মাণকার্যে যুক্ত কর্মীর ক্ষেত্রে। যার ফলে এখনও পর্যন্ত ৬৫০০ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে সেখানে। সেই প্রসঙ্গ উল্লেখ করে খিমিচ বলেছেন, ‍‘‍‘১০ বছর আগেই কাতার বিশ্বকাপ বয়কটের ডাক দেওয়া যেতে পারত। আমরা প্রতিবাদ জানাতে দেরি করে ফেলেছি। ১০ বছর আগেই কারও মাথায় এই প্রতিবাদ কর্মসূচির ভাবনা এলে ভাল হত। এখন আমাদের কাজ নিজেদের জনপ্রিয়তার সুযোগ নিয়ে জনসচেতনতা বাড়ানো। কিন্তু সেই দায়িত্ব কেবল ফুটবলারদের একা নিলে হবে না। সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement