Advertisement
১৪ জুলাই ২০২৪
Melissa Hoskins Dennis

স্ত্রীকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যার অভিযোগ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নের বিরুদ্ধে, গ্রেফতার ক্রীড়াবিদ

অলিম্পিয়ান স্ত্রীকে গাড়ি চাপা দিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন সাইক্লিস্টের বিরুদ্ধে। শনিবার রাতে এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার একটি শহরে।

sports

রোহান এবং মেলিসা ডেনিস। ছবি: এক্স।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০১ জানুয়ারি ২০২৪ ১২:৪৮
Share: Save:

অলিম্পিয়ান স্ত্রীকে গাড়ি চাপা দিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন সাইক্লিস্টের বিরুদ্ধে। শনিবার রাতে এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার একটি শহরে। রোহান ডেনিস নামে ৩৩ বছরের সেই সাইক্লিস্টকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিপজ্জনক ড্রাইভিং এবং ইচ্ছাকৃত ভাবে মানুষ মারার মতো গুরুতর ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে।

ঘটনার পরে রোহানের স্ত্রী মেলিসাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। গুরুতর চোট পাওয়া মেলিসা কিছু ক্ষণের মধ্যেই মারা যান। দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার মেডিন্ডি শহরে এই ঘটনা ঘটেছে। ডেনিসের এক প্রতিবেশী জানিয়েছেন, মাত্র এক সপ্তাহ আগেই সেই এলাকার একটি বাড়িতে এসেছিলেন এই দম্পতি। দুই সন্তানও রয়েছে তাঁদের। আর এক প্রতিবেশীর দাবি, এত শান্ত পাড়ায় এ ধরনের ঘটনা তাঁরা অতীতে দেখেননি।

এই ঘটনার ছ’দিন আগেই একটি ক্রিসমাস ট্রি-র সামনে স্ত্রীর সঙ্গে ছবি দিয়েছিলেন রোহান। ক্যাপশনে লিখেছিলেন, “আমাদের পরিবারের তরফে আপনাদের সবাইকে বড়দিনের শুভেচ্ছা জানাই।”

স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই সর্বোচ্চ পর্যায়ের সাইক্লিস্ট ছিলেন। রোহান ২০১২-র অলিম্পিক্সে রুপো এবং ২০২০-র অলিম্পিক্সে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন। মেলিসা অল্পের জন্য ২০১২ সালে পদক পাননি। কিন্তু ২০১৫ সালে দলগত ইভেন্টে সোনা জিতেছিলেন। ২০১৫ সালে সাইকেলে এক ঘণ্টায় সর্বোচ্চ দূরত্ব অতিক্রম করার রেকর্ড গড়েছিলেন রোহান। তার পরেও কেরিয়ারের শেষ পর্যায়ে প্রথম একশোর বাইরে চলে যান। ২০২৩-এর শেষ দিকে অবসর নেন। বিদায়ী বার্তাতেও বড় অংশ জুড়ে ছিল স্ত্রী মেলিসার কথা। তাঁকেই গাড়ি চাপা দিয়ে মেরে ফেলার অভিযোগ উঠেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

cyclist Death
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE