Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জুন ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

জানি কী ভাবে প্রত্যাশার চাপ সামলাতে হয়

কোহালি এটাও জানান, দলের কাছে দেশবাসীর একটা প্রত্যাশা থেকেই যায়। দেশের মানুষ সব সময়ই চান দল ভাল খেলুক। কিন্তু সেটা কী সব সময় সম্ভব, প্রশ্ন তো

সংবাদ সংস্থা
১৮ জুন ২০১৭ ১৩:৪৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে বিরাট কোহলি। ছবি: রয়টার্স।

শনিবার সাংবাদিক সম্মেলনে বিরাট কোহলি। ছবি: রয়টার্স।

Popup Close

এক দিকে ঠান্ডা লড়াই, অন্য দিতে উত্তেজনার চোরা স্রোত বয়ে চলেছে রবিবারের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির দ্বৈরথকে ঘিরে। সুদূর টেমসের তীর থেকে সেই স্রোত পৌঁছে গিয়েছে ভারত-পাকিস্তানের কোণায় কোণায়। মারকাটারি ম্যাচকে ঘিরে দুই দেশে প্রত্যাশার পারদও তুঙ্গে।

ভারত যে আজকের ফেভারিট সে কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। আইসিসি-ও ধারে ভারে এগিয়ে রেখেছে ভারতকেই। ম্যাচকে ঘিরে ভারত নিয়ে এত আশা-আকাঙ্খার মধ্যেও কিন্তু ‘কুল’ বিরাট কোহালি। মাঠের বাইরের তাপ-উত্তাপ, আলোচনা, সমালোচনা, আশা— কোনও কিছুই যেন ছুঁতে পারেনি ভারত অধিনায়ককে। অন্তত ম্যাচের আগে সাংবাদিক বৈঠকে তেমনটাই চোখে পড়েছে। ভারতকে নিয়ে প্রচুর আশা গোটা দেশের। এ প্রসঙ্গে কোহালিকে প্রশ্ন করা হলে বলেন, “প্রত্যাশার পাহাড়কে কী ভাবে সামলাতে হয়, বেশ কয়েক বছর হল শিখে গিয়েছি। সত্যি কথা বলতে কী মাঠে নামলে ও সব বিষয় আর মাথাতেই আসে না।”

আরও পড়ুন: আমি আশাবাদী, ওভালে ফিরবে মেলবোর্নের রাত

Advertisement

পাশাপাশি কোহালি এটাও জানান, দলের কাছে দেশবাসীর একটা প্রত্যাশা থেকেই যায়। দেশের মানুষ সব সময়ই চান দল ভাল খেলুক। কিন্তু সেটা কী সব সময় সম্ভব, প্রশ্ন তোলেন বিরাট। খেলায় তো হার-জিত আছেই! এটা বুঝতে হবে। বাস্তবের মাটিতে নামতেই হবে। দোলাচলে থেকে চলা যায় না। আর সব থেকে যে বিষয়টি জরুরি তা হল মাঠে নেমে কী করা উচিত সে দিকে মনোনিবেশ করা।

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ বলে কথা। এখানে আশার পার্সেন্টেজটাও স্বভাবতই অনেক অনেক বেশি। এটাকে তো কোনও ভাবে অস্বীকার করা যায় না? বিশেষ করে বিরাট কোহালির মতো এক জন ক্রিকেটারের কাছে। এ প্রসঙ্গ উঠতেই কোহালি বলেন, “এক জন ক্রিকেটারের প্রতি এমন প্রত্যাশার চাপ থাকাটা স্বাভাবিক, বিশেষ করে যখন সে গত কয়েক বছর ধরে ভাল পারফর্ম্যান্স করছে। তবে এই চাপকে কী ভাবে ট্যাকল করতে সে পথ খুঁজে নিতে হবে। এটাকে এড়িয়ে যেতে পারবেন না। একটা ব্যালান্স মেনটেন করতে হবে। মনে করি এ বিষয়টা আমি যথেষ্ট ভাল ভাবে ট্যাকল করার ক্ষমতা রাখি। আমার দৃঢ় বিশ্বাস রবিবারের ম্যাচের সময়ও নিজেকে ঠিক রাখতে পারব।”

ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে আলাদা ভাবে কোনও রণকৌশল ঠিক করেছেন কিনা এ প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা হলে কোহালি বলেন, “সেমিফাইনালের আগেও কোনও আলাদা চিন্তাভাবনা করিনি। ফাইনাল নিয়েও আলাদা ভাবে কোনও রণকৌশল ঠিক করা হয়নি। প্র্যাকটিস ম্যাচ যে ভাবে শুরু করেছিলাম, গোটা টুর্নামেন্টটাই সে ভাবে এগিয়েছি।” যতটা সম্ভব সহজ থাকা, রিল্যাক্স করা এবং ভাল সিদ্ধান্ত নেওয়া এটাই দলের মূল মন্ত্র বলেও জানিয়েছেন ভারত অধিনায়ক। টুর্নামেন্টের এমন এক গুরুক্বপূর্ণ জায়গায় পৌঁছে টেকনিক নিয়ে কাজ করার সুযোগ থাকে না। কী ভাবে বড় ম্যাচের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করছ এবং নিজের উপর বিশ্বাসটাই সবচেয়ে বড় শক্তি বলেও মনে করেন কোহালি। বলেন, “বোলিং বা ব্যাটিং নিয়ে কারও ভিডিও দেখাতে খুব একটা বিশ্বাস করি না। নিজের ক্ষমতা ও সামর্থ্যের প্রতি দৃঢ় বিশ্বাস আছে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Tags:
Cricket Cricketer Champions Trophy Champions Trophy 2017 Virat Kohli India Pakistanচ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিভারতপাকিস্তান
Something isn't right! Please refresh.

Advertisement