Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অজিঙ্ক-বিরাটের তুলনা করতে নিষেধ সচিনের

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বুধবার সচিন বলেছেন, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার আগের ব্যাটিং লাইন দেখেছি আর এই দলটার ব্যাটিং লাইন দেখছি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ ০৫:১৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
—ফাইল চিত্র

—ফাইল চিত্র

Popup Close

নিজের ক্রিকেট জীবনে সেরা সব অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন তিনি। সেই অভিজ্ঞতা থেকে সচিন তেন্ডুলকর মনে করেন, টিম পেনের এই দলটার ব্যাটিংয়ে সমস্যা রয়েছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে বুধবার সচিন বলেছেন, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার আগের ব্যাটিং লাইন দেখেছি আর এই দলটার ব্যাটিং লাইন দেখছি। আগেকার দলগুলোর ব্যাটিংটা অনেক গুছনো ছিল। ওরা একটা অন্য রকম তাগিদ নিয়ে ব্যাট করত। এই দলটার ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছে এখনও গুছিয়ে উঠতে পারেনি।’’

চলতি সিরিজে অ্যাডিলেডের দ্বিতীয় ইনিংস বাদ দিলে তিন বার অস্ট্রেলিয়া শেষ হয়েছে যথাক্রমে ১৯১, ১৯৫ এবং ২০০ রানে। যে ঘটনা অতীতে খুব একটা দেখা যেত না। সচিন পরিষ্কার বলেছেন, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার এই দলে এমন সব ব্যাটসম্যান আছে, যারা ভাল ফর্মে নেই। ওরা নিজেদের জায়গা ধরে রাখার ব্যাপারে চিন্তায় আছে। আগেকার দলগুলোয় যে যার নিজেদের জায়গায় ব্যাট করত। ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে কোনও অনিশ্চয়তা থাকত না।’’

Advertisement

আরও পড়ুন: রবীন্দ্র জাডেজাকে মেলবোর্নে খেলানোর মাস্টারস্ট্রোক ছিল কোচ রবি শাস্ত্রীর

অজিঙ্ক রাহানের নেতৃত্বও মুগ্ধ করেছে সচিনকে। তবে বিরাট কোহালির সঙ্গে কোনও তুলনা চান না এই কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান। সচিন পরিষ্কার বলে দিচ্ছেন, ‘‘বিরাটের সঙ্গে অজিঙ্কের নেতৃত্বের তুলনা করা উচিত নয়। অজিঙ্কের ব্যক্তিত্বটা অন্য রকম। ওর মনোভাবটা খুব আগ্রাসী ছিল।’’ সচিন আরও বলেন, ‘‘আমি সবাইকে মনে করিয়ে দিতে চাই, ওরা দু’জনেই ভারতীয়। দু’জনেই ভারতের হয়ে খেলে। কেউ দেশ বা দলের চেয়ে বড় নয়।’’

আরও পড়ুন: ইডেনে মুস্তাক আলি ট্রফির প্রস্তুতি দেখতে হাজির সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

চলতি সিরিজে ভারতীয় অফস্পিনার আর অশ্বিনের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার সেরা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথের দ্বৈরথ শিরোনামে উঠে এসেছে। যে দ্বৈরথে এখনও পর্যন্ত অশ্বিনেরই জয় হয়েছে। সচিনের মন্তব্য, ‘‘প্রথম টেস্টে স্মিথ আউট হয়েছিল একটা আর্ম বলে বা বলা যেতে পারে একটু সোজা হয়ে যাওয়া বলে। এই বলটা অশ্বিন একটু অন্য রকম ভাবে ছাড়ে। আঙুলটা বলের উপরে রাখে না।’’ স্মিথ স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন।

মেলবোর্নের প্রথম ইনিংসে অশ্বিনের বল ফ্লিক করতে গিয়ে ব্যাকওয়ার্ড শর্ট লেগে ক্যাচ দেন স্মিথ। যে আউট নিয়ে সচিনের ব্যাখ্যা, ‘‘দ্বিতীয় টেস্টে অশ্বিন বলের উপরে আঙুল রেখেছিল ডেলিভারি করার সময়। যে কারণে বল বাউন্সও হয়, আবার ঘোরেও। স্বাভাবিক প্রবৃত্তি অনুযায়ী স্মিথ বলটা ফ্লিক করে। ফিল্ডারকে দারুণ জায়গায় রাখা হয়েছিল।’’ যোগ করেন, ‘‘খুব পরিকল্পনা করে স্মিথকে আউট করা হয়েছিল। দু’জনেই খুব ভাল ক্রিকেটার। মাঠের লড়াইয়ে কারও না কারও দিনটা ভাল যাবে। এখনও পর্যন্ত অশ্বিনের গিয়েছে।’’

সচিনের মুখে শোনা গিয়েছে অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা শুভমন গিলের প্রশংসাও। মেলবোর্নে ওপেন করে দু’ইনিংসে শুভমনের সংগ্রহ ৪৫ এবং অপরাজিত ৩৫। সচিনের কথায়, ‘‘শুভমনকে খুব আত্মবিশ্বাসী দেখিয়েছে। অস্ট্রেলীয় বোলিংয়ের বিরুদ্ধে সাবলীল ভঙ্গিতে ব্যাট করেছে। শর্ট বলে ভাল শট খেলেছে। শুরুতেই কেউ ৪৫, ৩৫ রান করে আসাটা ভাল ব্যাপার।’’ পাশাপাশি যশপ্রীত বুমরা, মহম্মদ সিরাজদের প্রশংসাও করেছেন সচিন।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement