Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৫ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

চোট-আশঙ্কা সরিয়ে মেলবোর্নে দাপট চনমনে সেরিনার

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৭:৩৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
আগ্রাসী: টানা ১০টি গেম জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে সেরিনা।

আগ্রাসী: টানা ১০টি গেম জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে সেরিনা।
ছবি রয়টার্স।

Popup Close

অস্ট্রেলীয় ওপেনের প্রথম রাউন্ডে দাপটে শুরু করলেন সেরিনা উইলিয়ামস। ডান কাঁধের চোটে প্রস্তুতি প্রতিযোগিতা থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন ৩৯ বছর বয়সি মার্কিন তারকা। সেই উদ্বেগ দূর করে প্রথম রাউন্ডে সেরিনা ৬-১, ৬-১ উড়িয়ে দিলেন জার্মানির লরা সিগমন্ডকে।

মার্গারেট কোর্টের ২৪ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ড স্পর্শ করার সামনে থাকা সেরিনার পোশাকও এ দিন ছিল চর্চায়। ‘ক্যাটস্যুট’ পরে এ দিন নেমেছিলেন ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী। মার্কিন তারকার কথায় এই পোশাকের অনুপ্রেরণা প্রাক্তন অলিম্পিক্স চ্যাম্পিয়ন ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার। ১০০ এবং ২০০ মিটার স্প্রিন্টে বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন জয়নার। পাশাপাশি তিনি ‘ফ্যাশন আইকন’ও ছিলেন ১৯৮০-র দশকে। ১৯৯৮ সালে তিনি মারা যান। সেই বছরেই সেরিনা প্রথম বার অস্ট্রেলীয় ওপেনে নামেন। ‘‘আমার প্রেরণা ফ্লো জো। দুরন্ত ট্র্যাক অ্যাথলিট ছিলেন। ওঁর পোশাক আমাকে খুব আকর্ষণ করত। তাই এ বছর এই পোশাকে নামার সিদ্ধান্ত নিয়েছি,’’ বলেন সেরিনা। তিনি আরও বলেছেন, ‘‘প্রচুর চাপ ছিল আমার উপরে কোর্টে নামার আগে। কিন্তু ম্যাচটা জিতে উঠে অনেক হাল্কা লাগছে। স্বস্তি অনুভব করছি।’’ ম্যাচের শুরুতে অবশ্য সেরিনা ডাবল ফল্ট করে বসেছিলেন। প্রথম সার্ভিস গেমও হারান। কিন্তু এর পরে টানা ১০টি গেম জিতে প্রতিপক্ষকে ম্যাচে ফেরার কোনও সুযোগই দেননি।

দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছেন তাঁর দিদি ভিনাসও। ৪০ বছর বয়সি ভিনাস তাঁর ২১তম গ্র্যান্ড স্ল্যাম খেলতে নেমে কার্স্টেন ফ্লিপকেন্সকে হারান ৭-৫, ৬-২। এ বছর মেয়েদের ড্র-এ ভিনাসই সবচেয়ে বেশি বয়সের এবং ৪০ বা তার বেশি বয়েসে অস্ট্রেলীয় ওপেনে নামা ষষ্ঠ খেলোয়াড়। উইলিয়ামস বোনেদের সঙ্গেই এগিয়েছেন তিন বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন নেয়োমি ওসাকাও। তিনি ৬-১, ৬-২ হারান আনাস্তাসিয়া পাভলিউচেঙ্কোভাকে। ম্যাচের পরে ওসাকা বলেন, ‘‘এত দিন পরে প্রতিযোগিতায় খেলতে নেমে সবার মতো আমারও শরীরও সে ভাবে কোর্টে নড়াচড়া করতে পারছে না। আশা করছি যত ম্যাচ এগোবে তত ব্যাপারটা আয়ত্তের মধ্যে চলে আসবে।’’

Advertisement

২০১৯ যুক্তরাষ্ট্র ওপেন চ্যাম্পিয়ন বিয়াঙ্কা আন্দ্রেস্কুও ১৫ মাস পরে সফল প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন। তিনি তিন সেটের লড়াইয়ে হারান মিহায়েলা বুজ়ারনেস্কুকে। ফল ৬-২, ৪-৬, ৬-৩। ২০১৯ ডব্লিউটিএ ফাইনালসে হাঁটুর চোটে সরে দাঁড়ানোর পরে এই প্রথম প্রতিযোগিতায় নেমেছিলেন ২০ বছর বয়সি বিয়াঙ্কা। দ্বিতীয় বাছাই রোমানিয়ার সিমোনা হালেপও দুরন্ত জয় পেয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছেন। তিনি ৬-২, ৬-১ হারান ওয়াইল্ড কার্ড নিয়ে নামা স্থানীয় খেলোয়াড় লিজ়েট কাব্রেরাকে।

তবে ছিটকে গিয়েছেন তিন বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী অ্যাঞ্জেলিক কের্বের। প্রথম রাউন্ডে তিনি ০-৬, ৪-৬ হারেন বের্নার্দা পেরার বিরুদ্ধে। ২০১৬ অস্ট্রেলীয় ওপেন জয়ী জার্মানির তারকা কের্বের ১ ঘণ্টা ১০ মিনিটের মধ্যেই হার মানেন বিশ্বের ৬৩ নম্বর মার্কিন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। ‘‘জানতাম আমার বিরুদ্ধে কঠিন প্রতিপক্ষ রয়েছে। তবে এ জন্য প্রস্তুতি নিয়েই নেমেছিলাম,’’ বলেছেন পেরা। যিনি এর আগে কখনও গ্র্যান্ড স্ল্যামের তৃতীয় রাউন্ডের বেশি এগোননি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement