Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

শুভমন ভারতের ভবিষ্যৎ, বলছেন নাইট ব্যাটিং গুরু

নাইটদের অনুশীলনের দ্বিতীয় দিন শুভমনের সঙ্গেই ব্যস্ত ছিলেন ক্যাটিচ। ‘সিমিউলেশন প্র্যাক্টিস’-এর (ম্যাচের পরিস্থিতি অনুযায়ী অনুশীলন) সময় কভারের

নিজস্ব সংবাদদাতা
১৫ মার্চ ২০১৯ ০৪:১৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
কেকেআর অনুশীলনে ক্যাটিচ এবং শুভমন গিল। বৃহস্পতিবার রাতে এসে গেলেন দীনেশ কার্তিক। নিজস্ব চিত্র

কেকেআর অনুশীলনে ক্যাটিচ এবং শুভমন গিল। বৃহস্পতিবার রাতে এসে গেলেন দীনেশ কার্তিক। নিজস্ব চিত্র

Popup Close

কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে আরও একটি নতুন মরসুম শুরু হল সহকারী কোচ সাইমন ক্যাটিচের। বৃহস্পতিবার সল্টলেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রথম দিন অনুশীলন করালেন প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় ব্যাটসম্যান। আর প্রথম দিনই শুভমন গিলের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ তিনি। জানিয়ে দিলেন, দ্রুত ভারতীয় দলের নিয়মিত সদস্য হয়ে উঠবেন শুভমন।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের অনুশীলন শেষে ক্যাটিচ বলেন, ‘‘শুভমন এমন একজন ক্রিকেটার, যে কয়েক দিনের মধ্যেই ভারতীয় দলের নিয়মিত সদস্য হয়ে উঠবে। গত বারের চেয়ে আরও উন্নতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে ওর মধ্যে। গত বারের আইপিএলেই নিজেকে প্রমাণ করেছে ও। পঞ্জাবের হয়ে রঞ্জি ট্রফিতেও অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছে। নিউজ়িল্যান্ডেও ভারতের হয়ে খারাপ খেলেনি। ভাগ্য হয়তো ওর সঙ্গে ছিল না। তবে আগামী দিনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে অবশ্য কোনও অসুবিধা হবে না ওর।’’

নাইটদের অনুশীলনের দ্বিতীয় দিন শুভমনের সঙ্গেই ব্যস্ত ছিলেন ক্যাটিচ। ‘সিমিউলেশন প্র্যাক্টিস’-এর (ম্যাচের পরিস্থিতি অনুযায়ী অনুশীলন) সময় কভারের উপর দিয়ে মারতে গিয়ে এক বার আউটও হয়ে যান পঞ্জাবের তরুণ। তখনই ছাত্রের কাছে গিয়ে বুঝিয়ে দেন, কোথায় তাঁর অসুবিধা হচ্ছে। বাধ্য ছাত্রের মতো তাঁর পরামর্শ শোনেন শুভমন। পরের বলটাই উড়িয়ে দেন বাউন্ডারির বাইরে।

Advertisement

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

শুভমনের উপর নজর থাকলেও এ বার খেলতে দেখা যাবে না তাঁর বন্ধু কমলেশ নগরকোটি ও শিবম মাভিকে। তাঁদের জায়গায় দলে নেওয়া হয়েছে সন্দীপ ওয়ারিয়র ও পৃথ্বীরাজ ইয়েরাকে। যদিও সন্দীপের ছাড়পত্র এখনও ভারতীয় বোর্ডের পক্ষ থেকে পাওয়া যায়নি। কেকেআর আশাবাদী দ্রুত তাঁর ছাড়পত্র এসে যাবে। ক্যাটিচের কথায়, ‘‘কমলেশের কোমরের চোট এখনও সারেনি। আরও সময় লাগবে। এ বছর দলের সঙ্গেই ও রিহ্যাব করবে। কিন্তু ম্যাচ খেলতে পারবে না। তাই পেস বোলারের জায়গা পূরণ করার জন্য সন্দীপকে ওর বিকল্প হিসেবে ভাবা হয়েছে। যদিও ভারতীয় বোর্ডের তরফ থেকে ছাড়পত্র এসে পৌঁছয়নি।’’

ক্যাটিচ মনে করেন, এ মরসুমে তাঁর দলের অন্যতম চমক হতে চলেছেন কার্লোস ব্রাথওয়েট। ইডেনেই ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তাঁর দেশকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতিয়েছিলেন এক ওভারে চারটি ছয় মেরে। ক্যাটিচ বলছিলেন, ‘‘আন্দ্রে রাসেলকে বিশ্রাম দিতে হলে ওর জায়গায় যোগ্য বিকল্প আমরা গত বছর পাইনি। কিন্তু এ বার আমাদের দলে ব্রাথওয়েট রয়েছে। বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও ও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। হয়তো দু’জনকেই একসঙ্গে আমরা খেলাতে পারি।’’

বৃহস্পতিবারই কলকাতায় নেমেছেন দীনেশ কার্তিক। শুক্রবার সকালে দলের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দেওয়ার কথা তাঁর। ক্যাটিচ মনে করেন, ভারতের বিশ্বকাপ দলে কার্তিকের অভিজ্ঞতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ ওয়ান ডে সিরিজে ছিলেন না কেকেআর অধিনায়ক। ক্যাটিচ যদিও বলেন, ‘‘ফিনিশার হিসেবে কার্তিক বরাবরই সফল। এর আগেও ভারতের হয়ে ও ফিনিশার হিসেবে সফল হয়েছে। বিশ্বকাপে ওর অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে।’’

বিশ্বকাপে স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের প্রত্যাবর্তন যে আরও দুরন্ত হয়ে উঠতে পারে তা মানছেন ক্যাটিচ। বলেন, ‘‘ভারতের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া এই দল নিয়ে জিতবে তা হয়তো অনেকেই ভাবেনি। বিশ্বকাপে এই দলেই স্মিথ ও ওয়ার্নারকে পেলে আরও ভাল হয়ে উঠবে অস্ট্রেলিয়া।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement