Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Euro 2020: বেলজিয়াম-ডাচদের জয়, এরিকসেনের জয়ধ্বনি

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৮ জুন ২০২১ ০৯:১২
বেলজিয়ামের মতোই বৃহস্পতিবার জিতে শেষ ষোলোয় চলে গেল নেদারল্যান্ডস।

বেলজিয়ামের মতোই বৃহস্পতিবার জিতে শেষ ষোলোয় চলে গেল নেদারল্যান্ডস।
ছবি: রয়টার্স

স্মরণীয় প্রত্যাবর্তন। পরিবর্ত হিসেবে নেমে গোল করিয়ে ও করে বেলজিয়ামের জয়ের নায়ক সেই কেভিন দ্য ব্রুইন।

বেলজিয়ামের মতোই বৃহস্পতিবার জিতে শেষ ষোলোয় চলে গেল নেদারল্যান্ডস। দিনের তৃতীয় ম্যাচে অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে ১১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ১-০ করেন মেম্ফিস দেপাই। এর পরে ৬৭ মিনিটে নেদারল্যান্ডসকে ২-০ এগিয়ে দেন ডেনজ়েল ডামফ্রাইস।

ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে মাঠের মধ্যেই ডেনমার্কের ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন হদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। প্রায় মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছেন ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার। সেই আতঙ্ক এখনও ভুলতে পারেননি গোটা বিশ্বের মানুষ। বৃহস্পতিবার কোপেনহাগেনে ঘরের মাঠে বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে খেলা শুরু হওয়ার আগে দেখা গেল অভিনব দৃশ্য। এরিকসেনের নাম ও ১০ নম্বর লেখা বিশাল জার্সি মাঠে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তারকার দ্রুত আরোগ্য কামনা করতেই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। গ্যালারিতেও ছিল ‘দ্রুত সেরে ওঠো এরিকসেন’ লেখা অসংখ্য পোস্টার ও ব্যানার।

Advertisement

আবেগঘন পরিবেশে ফিফা ক্রমতালিকায় শীর্ষ স্থানে থাকা বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে ম্যাচের দু’মিনিটের মধ্যেই ডেনমার্ক এগিয়ে যায়। বিপক্ষের ডিফেন্ডার জেসন দেনায়ারের ভুলে গোল করেন ইউসুফ পলসেন। তবুও জয়ের আশা অপূর্ণই থেকে গেল ডেনমার্কের। চেলসির বিরুদ্ধে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালে নাকের হাড় ভেঙে যাওয়ায় ইউরো কাপের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারেননি ম্যাঞ্চেস্টার সিটির তারকা দ্য ব্রুইন। রাশিয়ায় না গিয়ে বেলজিয়ামের জাতীয় শিবিরেই সুস্থ হচ্ছিলেন তিনি। সমর্থকদের আশ্বস্ত করেছিলেন ডেনমার্ক ম্যাচ খেলার ব্যাপারে। বৃহস্পতিবার ডেনমার্কের বিরুদ্ধেও যদিও তাঁকে প্রথম একাদশে রাখেননি কোচ রবের্তো মার্তিনেস। ০-১ পিছিয়ে যাওয়ার পরে আর ঝুঁকি নেননি তিনি। দ্বিতীয়ার্ধে শুরুতেই তাঁকে নামান মার্তিনেস। ৫৪ মিনিটে দ্য ব্রুইনের পাস থেকেই গোল করে ১-১ করেন থোরগান অ্যাজ়ার। ৭১ মিনিটে পরিবর্ত হিসেবে নামা আর এক তারকা এডেন অ্যাজ়ারের পাস থেকে গোল করে ২-১ করেন দ্য ব্রুইন। টানা দু’টি জয়ের পরে ছ’পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপ থেকে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই শেষ ষোলোয় পৌঁছে গেল খেতাবের অন্যতম দাবিদার বেলজিয়াম।

ম্যাচের পরে আনন্দে ভেসে যান বেলজিয়াম কোচ। গ্রুপে তাঁদের শেষ ম্যাচ রয়েছে ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে। সে সম্পর্কে মার্তিনেসের কাছে জানতে চাওয়া হলে মাঠেই তিনি বলে দেন, ‘‘ফিনল্যান্ড নিয়ে পরে ভাবা যাবে। আপাতত জয়ের আনন্দ উপভোগ করতে দিন।’’ ডেনমার্কের বিরুদ্ধে জয় সম্পর্কে মার্তিনেস বলেন, ‘‘প্রথমার্ধে ছেলেদের কিছুটা জড়তা ছিল। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে তা কাটিয়ে দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়ায় ওরা। তার ফলেই এই দুরন্ত

জয় এসেছে।’’

বেলজিয়াম ফুটবলারেরাও প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করায় খুশি। দলের স্ট্রাইকার রোমেলু লুকাকু বলে যান, ‘‘আমাদের গোটা দলটা দ্বিতীয়ার্ধে নাটকীয় ভাবে ম্যাচ জেতার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। এখনও প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স করতে পারিনি আমরা।’’

বৃহস্পতিবার জিতল ইউক্রেনও। আন্দ্রি ইয়ারমোলেঙ্কো-রোমান ইয়ারেমচুক যুগলবন্দিতে উত্তর ম্যাসিডোনিয়াকে হারিয়ে ঘুরে দাঁড়াল তারা। বাঁচিয়ে রাখল শেষ ষোলোয় যোগ্যতা অর্জনের আশাও। বুখারেস্টে ম্যাচের ২৯ মিনিটে বিপক্ষের রক্ষণের ভুলে গোল করে ইউক্রেনকে ১-০ এগিয়ে দেন ইয়ারমোলেঙ্কো। পাঁচ মিনিট পরে ২-০ করেন রোমান। ৩৯ মিনিটে গোরান পান্ডেভের গোল অফসাইডের কারণে বাতিল করে দেন রেফারি। ৫৫ মিনিটে উত্তর ম্যাসিডোনিয়া পেনাল্টি পায়। এজ়গিয়ান আলিয়োস্কির শট ইউক্রেনের গোলরক্ষক গ্রেগরি বুশচান বাঁচালেও বল তাঁর হাত থেকে বেরিয়ে যায়। এ বার আর গোল করতে ভুল করেননি আলিয়োস্কি। এই জয়ের পরে ‘সি’ গ্রুপে দুই ম্যাচে তিন পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানেই থাকল ইউক্রেন। সমসংখ্যক ম্যাচে খেলা উত্তর ম্যাসিডোনিয়ার পয়েন্ট শূন্য।

আরও পড়ুন

Advertisement