লকেটের জন্য দুই নিরাপত্তা রক্ষী
চন্দনননগর কমিশনারেটের এক কর্তা জানান, হামলাকারীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। সব দিক খোলা রেখেই তদন্ত এগোচ্ছে। নিরাপত্তা রক্ষী মোতায়েন নিয়ে লকেট বলেন, ‘‘কমিশনারেটের তরফে আমাকে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে। আমি কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর জন্যও দলকে বলেছি।’’
bjp

তছনছ: ভাঙা হয়েছে টিভি। এলোমেলো পড়ে ঘরের নানা জিনিস। ছবি: তাপস ঘোষ

হুগলি লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের জন্য শনিবার থেকে দুই নিরাপত্তা রক্ষী বহাল করল চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেট। কমিশনারেট সূত্রের খবর, নিরাপত্তা রক্ষীদের একজন ব্যান্ডেলের গ্রিন পার্কে লকেটের ভাড়াবাড়িতে প্রহরায় থাকছেন। 

অন্য জন থাকছেন প্রার্থীর সঙ্গে। শুক্রবার সকালে ওই বাড়িতে হামলার ঘটনায় পুলিশ অবশ্য কাউকে ধরতে পারেনি। 

চন্দনননগর কমিশনারেটের এক কর্তা জানান, হামলাকারীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। সব দিক খোলা রেখেই তদন্ত এগোচ্ছে। নিরাপত্তা রক্ষী মোতায়েন নিয়ে লকেট বলেন, ‘‘কমিশনারেটের তরফে আমাকে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে। আমি কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর জন্যও দলকে বলেছি।’’

শুক্রবার সকালে লকেটের ওই ভাড়াবাড়িতে প্রায় আধ ঘণ্টা ধরে হামলা চালায় মোটরবাইকে আসা একদল যুবক। লকেট তখন দলের মহিলা সহকর্মীদের সঙ্গে দোতলাতেই ছিলেন। বেগতিক বুঝে দিদি মালা চট্টোপাধ্যায় তাঁকে অন্য ঘরে সরিয়ে নেন। তৃণমূলই ওই হামলার পিছনে রয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছিলেন লকেট। তৃণমূল অবশ্য অভিযোগ উড়িয়ে দাবি করে, ওই হামলা বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ফল। কিন্তু ভোটের মুখে বিজেপি প্রার্থীর ভাড়াবাড়িতে ওই হামলায় নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তার পরেই শনিবার নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ করা হল।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত