মেডিক্যাল কলেজে আসন সংখ্যা বৃদ্ধি ঘিরে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে ‘অসন্তুষ্ট’ রাজ্য সরকার। স্বাস্থ্য ভবন সূত্রে তেমনই খবর।

আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া শ্রেণির জন্য মেডিক্যাল কলেজগুলিতে সংরক্ষণ চালু করতে সক্রিয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। সেই লক্ষ্যে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের জন্য সম্প্রতি মেডিক্যাল কলেজগুলিতে আসন সংখ্যা বৃদ্ধির প্রস্তাবে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছে মেডিক্যাল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া’র (এমসিআই) বোর্ড অফ গভর্নরস। ফলে আর জি কর মেডিক্যাল কলেজে আসন দু’শো থেকে বেড়ে হয়েছে আড়াইশো। আরও একটি কলেজেও ওই সংখ্যক আসন বৃদ্ধি হয়েছে। স্বাস্থ্য ভবন সূত্রের খবর, রাজ্যের আরও ন’টি মেডিক্যাল কলেজে আসন সংখ্যা বৃদ্ধি হয়েছে। তবে সেগুলিতে পরিকাঠামোগত সমস্যা কম। আর জি করে যে সমস্যা যথেষ্ট। সেই কারণেই রাজ্যের আপত্তি।

এমসিআই সূত্রের খবর, পিছিয়ে পড়া শ্রেণির জন্য দশ শতাংশ আসন সংরক্ষণ চালু করতে গিয়ে সমাজের অন্য স্তরের অধিকার যাতে খর্ব না হয়, তা নিশ্চিত করা হয়েছে। সেই সূত্রেই আর জি করে আসন বেড়েছে। স্বাস্থ্য ভবন সূত্রের খবর, আড়াইশো আসনের জন্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো আরজিকরে নেই। রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা না করে আসন বৃদ্ধি করা হয়েছে বলেই আপত্তি। স্বাস্থ্যভবন সূত্রের খবর, এই অসন্তোষের কথা কেন্দ্রকে লিখিত ভাবে জানাতে পারে নবান্ন। স্বাস্থ্য ভবনের এক কর্তার কথায়, ‘‘দু’শো এবং আড়াইশো সিটের মধ্যে পরিকাঠামোগত ফারাক অনেকটা। পরে রাজ্যকে সমস্যায় পড়তে হবে। আগামী দিনে পরিদর্শন হলে সব আসনের অনুমোদন ঘিরেই টানাপড়েন হবে!’’ আর এক কর্তা বলেন, ‘‘পরিকাঠামোর উন্নতি ঘটানোর অর্থ কোথা থেকে আসবে, স্পষ্ট নয়।’’ এই প্রেক্ষিতেই টানাপড়েন।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।