• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ডাক্তারিতে সংরক্ষণ বহাল কোর্টে

doctor
প্রতীকী ছবি।

স্নাতকোত্তরে (এমডি-এমএস) ভর্তির ক্ষেত্রে তিন বছর ধরে কর্মরত চিকিৎসকদের জন্য ৪০ শতাংশ আসন সংরক্ষণ করেছিল রাজ্য। গত অক্টোবরে সেই আসন সংরক্ষণ বাতিল করে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। সোমবার সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ হাইকোর্টের সেই নির্দেশকে ‘সংবিধানসম্মত’ নয় বলে খারিজ করেছে। হাইকোর্টের তৎকালীন বিচারপতি সম্বুদ্ধ চক্রবর্তীর ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছিল, এমডি, এমএস-এ আসন সংরক্ষণের এক্তিয়ার রাজ্যের নেই। ওই সময় যে সব কর্মরত (ইন-সার্ভিস) চিকিৎসক এমডিএমএস-এ ভর্তি হন, তাঁদের ভর্তিও বাতিল করে দেয় হাইকোর্ট।

এ দিন সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, হাইকোর্টের ওই রায় সংবিধানসম্মত নয়। আসন সংরক্ষণের এক্তিয়ার বা অধিকার রাজ্যের আছে। একই সঙ্গে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, যে সব চাকরিরত চিকিৎসক স্নাতকোত্তরে ভর্তি হয়েছিলেন, তাঁদের ভর্তি বহাল থাকবে। তবে রাজ্য সরকারের নিয়ম মেনে তাঁদের পাঁচ বছরের বন্ড জমা দিয়ে জানাতে হবে, পাশ করার পরে গ্রামীণ এলাকায় তাঁরা চিকিৎসা পরিষেবা দেবেন। কর্মরত চিকিৎসকদের আইনজীবী কল্লোল বসু ও সুমন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, তিন বছর ধরে কর্মরত ডাক্তারদের স্নাতকোত্তরে ভর্তির ক্ষেত্রে ৪০ শতাংশ আসন সংরক্ষণ থাকবে বলে ২০১৩ সালে রাজ্যে বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। ২০১৯ সালে ‘ওপেন ক্যাটেগরি’র কয়েক জন চিকিৎসক ওই বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন