• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

হলকর্ষণে রাজ্যপাল, পোস্টার ‘ফি’ নিয়ে

dhankhar
দাবি: বোলপুরে এসএফআইয়ের পোস্টার। নিজস্ব চিত্র।

হলকর্ষণ উৎসবের উদ্বোধন করতে আজ, বুধবার শ্রীনিকেতনে আসছেন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সেখান থেকেই একটি ফটো গ্যালারি উদ্বোধন করতে তিনি যাবেন রবীন্দ্রভবন। তাঁর সেই যাত্রাপথেই শিক্ষাভবন সংলগ্ন রাস্তার ধারে পোস্টার দিল এসএফআই। বর্তমান পরিস্থিতিতে ভর্তি ও আবেদন ফি মকুব করার দাবি জানানো হয়েছে পোস্টারগুলিতে। 

গত ১০ অগস্ট বিশ্বভারতীর নতুন ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হতেই দেখা যায়, এ বছরও আবেদনপত্রের মূল্য একই রাখা হয়েছে এবং ভর্তির মূল্য স্থান বিশেষে বৃদ্ধি করা হয়েছে। গত বছর মে মাসে আবেদনপত্র ও ভর্তির ফি-বৃদ্ধির বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামেন ছাত্রছাত্রীদের একটি অংশ। লিপিকা প্রেক্ষাগৃহে উপাচার্য -বহু আধিকারিক ও অধ্যাপকদের ঘেরাও করেও রাখা হয়। আন্দোলনকারীদের দাবি, তখন কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দিয়েছিলেন, ২০২০-’২১ শিক্ষাবর্ষের আবেদন পত্র ও ভর্তির মূল্য নির্ধারণের আগে সমস্ত দাবী পুনর্বিবেচনা করে দেখা হবে এবং পড়ুয়াদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে তাঁরা বৈঠকও করবেন। গত ৮ অগস্ট এসএফআইয়ের তরফে উপাচার্যকে ই-মেলের মাধ্যমে এ বছরের জন্য সমস্ত ফি মকুবের আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু পড়ুয়াদের অভিযোগ, করোনা পরিস্থিতিতে কোনও রকম আলাপ আলোচনা ছাড়াই নতুন শিক্ষাবর্ষের আবেদন ও ভর্তির মূল্য জানিয়ে দেওয়া হল, যা কিছু ক্ষেত্রে বেশি আর কিছু ক্ষেত্রে অপরিবর্তিত। 

এই পরিস্থিতিতে পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল তথা বিশ্বভারতীর প্রধানের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাইছে এসএফআই। বিশ্বভারতী এসএফআইয়ের এক সদস্য প্রত্যুষ মুখোপাধ্যায় বলেন, “কর্তৃপক্ষকে বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও ফি-মকুব নিয়ে আমাদের কথায় কর্ণপাত করা হয়নি। তাই বাধ্য হয়েই রাজ্যপালের দৃষ্টি আকর্ষণের এই প্রয়াস। আশা করি আমাদের সমস্যার গভীরতা বুঝতে পেরে তিনি বিশ্বভারতীর সকলের অভিভাবক হিসেবে অন্তত বর্তমান শিক্ষাবর্ষের সমস্ত ফি মকুব করবেন।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন