শোনা যাচ্ছিল, স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কটা তলানিতে এসে ঠেকেছে। কথা হচ্ছে ভাস্বর ও নবমিতা চট্টোপাধ্যায়ের। বিবাহবিচ্ছেদ হল বলে! নবমিতা নাকি শ্বশুরবাড়িতে মানিয়ে নিতে পারছেন না। স্বামীর জীবনধারণের সঙ্গে মানিয়ে নিতেও অসুবিধে হচ্ছে তাঁর। ভাস্বর নাকি স্ত্রীকে পরামর্শ দিয়েছিলেন, আবার বিয়ে করার। গোটা ব্যাপারটা হেসে উড়িয়ে দিলেন ভাস্বর। জানালেন, তাঁর কানেও এসেছে এই সব কথা। অশৌচ থাকায় গত বছর শ্বশুরবাড়িতে লক্ষ্মীপুজোয় দেখা যায়নি তাঁকে। পুজোর সময়ে বাবার সঙ্গে একা ঘুরতে গিয়েছিলেন। এর পরেই আরও বেশি করে বিচ্ছেদের গুজব রটে! তাতে অবশ্য বিচলিত হননি চট্টোপাধ্যায় দম্পতি। বরং শত্তুরের মুখে ছাই দিয়ে ভাস্বর ফেসবুকে পোস্ট করেছেন তাঁদের পঞ্চম বিবাহবার্ষিকীর ছবি। দীর্ঘ দাম্পত্যের আশীর্বাদ চেয়ে।