একেবারে আমূল বদলে গেল কাস্টিং! অরিন্দম শীলের আগামী ছবিতে বলিউড অভিনেত্রী সায়নী গুপ্তর কাজ করার কথা ছিল। সে জায়গায় আসছেন মিমি চক্রবর্তী। কারণ নিয়ে অবশ্য নির্মাতা সংস্থা থেকে পরিচালক সকলের মুখে একটাই কথা। ‘লজিস্টিক সমস্যা’র জন্যই নাকি এটা হয়েছে। কিন্তু বিষয়টা কি আদৌ তাই? 

মিমির হাতে শুধু ‘ট্যাক্সি ড্রাইভার’ ছবিটি ছিল। কিন্তু তাঁর হাতে নতুন ছবি আসা যে সময়ের অপেক্ষা, তা বলাই বাহুল্য। প্রযোজক সংস্থার খাতায় মিমির নাম এক নম্বরে। এ ছবিতে সায়নীকে নিতেই বদ্ধপরিকর ছিলেন পরিচালক। নানা কারণে বিষয়টা বাস্তবায়িত হয়নি। সূত্রের খবর, প্রযোজনা সংস্থার পরামর্শেই মিমিকে কাস্ট করা হল। ছবিতে থাকছেন না আদিল হুসেনও। এ দিকে আবীর চট্টোপাধ্যায়ের জায়গায় আসছেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য। চরিত্রটি তেমন জোরালো নয় বলেই নাকি আবীর করতে চাননি। ছবিতে নতুন এন্ট্রি তনুশ্রী চক্রবর্তী। 

ঘোষণার পরে একাধিক চরিত্রের মুখ বদলে যাওয়ার ঘটনা সচরাচর ঘটে না। শোনা যাচ্ছে, বলিউডের একাধিক মুখ থাকার জন্য ছবির বাজেট বেড়ে যাচ্ছিল। তাই নির্মাতা সংস্থা সিদ্ধান্ত নেয় কাস্ট বদলানোর।