• তুলিকা মাইতি
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রোড ম্যাপ

দৈনন্দিন জীবনে যা কিছু ব্যবহার করি, সেগুলি প্রস্তুত করার পিছনে কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর হাত রয়েছে। বেশির ভাগ কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ার পেট্রোলিয়াম রিফাইনারি এবং পেট্রোকেমিকাল সংস্থায় চাকরি করেন। এ ছাড়া, ফার্টিলাইজার, সিমেন্ট, পেপার, ফার্মাসিউটিকাল, ডাই, অর্গ্যানিক এবং ইনঅর্গ্যানিক সংস্থাতেও কাজের সুযোগ রয়েছে এঁদের। 

রাজ্যে 
• যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় (www.jaduniv.edu.in)। এখানে স্নাতক স্তরে কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ানো হয়। এর পর এখানে দু’বছরের মাস্টার ইন কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং ছাড়াও বায়োপ্রসেস ইঞ্জিনিয়ারিং পড়া যায়।  
• আই আই টি খড়্গপুর (www.iitkgp.ac.in)। কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বি টেক, এম টেক ছাড়াও ডুয়াল ডিগ্রি কোর্স পড়ানো হয়। 
• এন আই টি দুর্গাপুর (www.nitdgp.ac.in)। এখানকার কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর বি ই কোর্সে ভর্তি হতে গেলে এআইইইই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। এখানে পূর্ণ সময়ের এম টেক কোর্সটির মেয়াদ দেড় বছরের। আর যারা পার্ট টাইমে এম টেক পড়তে চায়, তাদের সময় লাগবে তিন বছর।
• হেরিটেজ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (www.heritageit.edu)। ওয়েস্ট বেঙ্গল ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি-র অন্তর্গত এই প্রতিষ্ঠানে কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বি টেক পড়া যাবে। 
অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানে উচ্চ মাধ্যমিক বা সমতুল পরীক্ষা দিয়ে হয় রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স বা সর্বভারতীয় প্রবেশিকা পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি হওয়া যায়।
• কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় (www.caluniv.ac.in)। 
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে এই বিষয়ে তিন বছরের বি টেক করতে গেলে ফিজিক্স ও অঙ্ক সহ কেমিস্ট্রি অনার্স পাশ করতে হবে অথবা এর সমতুল ডিগ্রি থাকতে হবে। এ ছাড়া, এখানে এম টেক ও পিএইচ ডি-ও পড়তে পারে ছেলেমেয়েরা।

রাজ্যের বাইরে 
অধিকাংশ আইআইটি, এনআইটি (ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি)-তেই কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে নানান কোর্স পড়ানো হয়। পড়া যায় এগুলোতেও:
• বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় (www.iitbhu.ac.in)। এখানে কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে বি টেক পড়তে হলে আইআইটি এবং ইন্ডিয়ান স্কুল অব মাইন্স দ্বারা পরিচালিত জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। এম টেক করতে পাশ করতে হবে গেট পরীক্ষা। আর পিএইচ ডি করার জন্য লাগবে গেট বা নেট-এর স্কোর।
• বিআইটিএস পিলানি (www.bits-pilani.ac.in)। প্রতিষ্ঠানের পিলানি, গোয়া, হায়দরাবাদ ক্যাম্পাসে কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বি ই (অনার্স) পড়তে বিটস্যাট পরীক্ষা দিতে হবে। স্নাতকোত্তর স্তরে পিলানিতে এই বিষয়ে এম ই করা যায় পেট্রোলিয়াম ইঞ্জিনিয়ারিং-এ স্পেশালাইজেশন সহ।
• হারকোর্ট বার্টলার টেকনোলজিকাল ইনস্টিটিউট (www.hbti.ac.in) কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এ বি টেক এবং এম টেক, দুটোই করা যাবে। এখানে ফুল টাইম-এর পাশাপাশি পার্ট টাইমেও এম টেক পড়ানো হয়।
• ইনস্টিটিউট অব কেমিকাল টেকনলজি, মুম্বই (www.ictmumbai.edu.in)। কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং-এর স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর কোর্স আছে। স্নাতক স্তরে ভর্তি হতে মহারাষ্ট্র সিইটি অথবা সর্বভারতীয় জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। 
• আইআইএসসি, বেঙ্গালুরু (www.iisc.ernet.in)। এই বিষয়ে উচ্চশিক্ষা [এম ই, এম এসসি (ইঞ্জিনিয়ারিং), পিএইচ ডি] করতে পারে ছাত্রছাত্রীরা। 

উচ্চশিক্ষা
কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং এমনই একটি বিষয়, যা নিয়ে পড়ে অন্য অনেক বিষয়েও উচ্চশিক্ষা করা যায়। যেমন, স্নাতকস্তরে কেমিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার পর স্নাতকোত্তর স্তরে বায়োটেকনোলজি, ন্যানোটেকনোলজি, ফুড টেকনোলজি, কম্বাশন ইঞ্জিনিয়ারিং, সেরামিক ইঞ্জিনিয়ারিং, এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং, পেপার টেকনোলজির মতো বিষয় নিয়ে পড়া যায়। বিদেশেও বায়োটেকনলজি, এনভায়রনমেন্টাল কন্ট্রোল, পলিউশন, ন্যানোটেকনোলজি নিয়ে গবেষণা করা যেতে পারে।

 

দেশে-বিদেশে কোথায় কোন বিষয় পড়ানো হচ্ছে, যে বিষয় নিয়ে পড়তে চাইছ, তাতে উচ্চশিক্ষা, গবেষণা এবং চাকরির সুযোগ কতটা, বিভিন্ন কোর্স এবং ট্রেনিংয়ের খোঁজখবর জানতে চাইলে প্রশ্ন পাঠাও আমাদের কাছে। ইমেল: prastuti@abp.in। বিষয়: road map. অথবা, চিঠি পাঠাও এই ঠিকানায়: রোড ম্যাপ, প্রস্তুতি, আনন্দবাজার পত্রিকা, এ বি পি প্রাঃ লিঃ, ৬ প্রফুল্ল সরকার স্ট্রিট, কলকাতা ৭০০০০১

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন