Advertisement
২৬ নভেম্বর ২০২২
purulia

Short Purulia Trip: অল্প খরচে কাছে পিঠে ঘুরে আসতে চান? চলে যান পুরুলিয়া

এক দিকে কোভিডের ধাক্কা পেরিয়ে ক্রমশ সুস্থ হচ্ছে রাজ্য। অন্য দিকে বসন্ত প্রায় এসে গিয়েছে। তাই অনেকেই চাইছেন চট করে একটু ঘুরে আসতে।

পুরুলিয়া শহর থেকে গড়পঞ্চকোটের দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার।

পুরুলিয়া শহর থেকে গড়পঞ্চকোটের দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৫:৫৪
Share: Save:

পুরুলিয়ার পর্যটনক্ষেত্রগুলিকে মোটামুটি তিন ভাগে বিভক্ত করা যায়, অযোধ্যা পাহাড় এলাকা, বান্দোয়ান এলাকা ও গড় এলাকা। এখানে গড় এলাকা নিয়ে আলোচনা করা হল। এটি পুরুলিয়া শহরের উত্তর-পূর্ব দিকে অবস্থিত। ভাল ভাবে গড় সার্কিট ঘুরতে গেলে ২ দিন সময় প্রয়োজন।

Advertisement

১। কাশীপুর রাজবাড়ি

পঞ্চকোট রাজপরিবার প্রায় ৮০০ বছর ধরে কাশীপুর শাসন করে। মহারাজা নীলমণি সিংহ দেও এই রাজবাড়িটি তৈরি করেন। ঐতিহাসিক এই বাড়ির ভিতরে প্রবেশ করতে হলে দুর্গাপুজোর সময় যেতে হবে। অন্য সময় এখানে সাধারণ মানুষের প্রবেশ নিষিদ্ধ। মাইকেল মধুসূদন দত্ত এক সময় এই রাজবাড়িতে চাকরি করতেন।

২। জয়চণ্ডী পাহাড়

Advertisement

পুরুলিয়ার অন্যতম আকৰ্ষণ জয়চণ্ডী পাহাড়। জয়চণ্ডী রেল স্টেশন থেকে এর দূরত্ব মাত্র ২ কিলোমিটার। আদ্রা স্টেশন থেকেও এখানে চলে আসা যায়। বাঙালির সংস্কৃতির সঙ্গে এই পাহাড়ের কিন্তু একটি বিশেষ যোগাযোগ রয়েছে। এই পাহাড়ে সত্যজিৎ রায়ের ‘হীরক রাজার দেশে’ ছবির শুট্যি‌ং হয়েছিল। পাহাড়ের উপরে রয়েছে জয়চণ্ডী মন্দির ও বজরং মন্দির। ৫০০ টির বেশি সিঁড়ি বেয়ে উপরে ওঠার অভিজ্ঞতা ভাষায় ব্যক্ত করা কঠিন।

পুরুলিয়ার  অন্যতম আকৰ্ষণ জয়চণ্ডী পাহাড়।

পুরুলিয়ার  অন্যতম আকৰ্ষণ জয়চণ্ডী পাহাড়।

৩। গড়পঞ্চকোট

গড়পঞ্চকোট আসলে পুরুলিয়ার পুরোনো রাজবাড়ির ধ্বংসাবশেষ। এখানে বেশ কিছু মন্দির রয়েছে। শোনা যায় এই মন্দিরগুলি বর্গী আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্থ হয়, তবে এখনও বেশ কিছু মন্দিরের ধ্বংসাবশেষ আছে। গড় সার্কিট ঘোরার সময় অবশ্যই এই জায়গাটি ঘুরে নেবেন। পুরুলিয়া শহর থেকে গড়পঞ্চকোটের দূরত্ব ৫৫ কিলোমিটার।

কোথায় থাকবেন

পুরুলিয়া শহরে পৌঁছে থাকার জন্য বহু হোটেল পেয়ে যাবেন। ট্যাক্সি স্ট্যান্ড বা পোস্ট অফিসের কাছে হোটেল নিলে গাড়ি পেতে সুবিধা হবে। সুবিধা হবে খাবারের জায়গা পেতেও। সকাল সকাল গাড়ি ভাড়া করে বেরিয়ে পড়ুন গড় সার্কিটের উদ্দেশে। জয়চণ্ডীতে থাকতে চাইলে কাছেই রয়েছে সরকারি গেস্ট হাউস। গড়পঞ্চকোট এলাকায় দুপুর বা বিকেলের খাবার খাওয়ার বেশ কিছু হোটেল আছে।

কী ভাবে যাবেন

ট্রেন: হাওড়া থেকে চক্রধরপুর এক্সপ্রেস ধরলে রাতে ট্রেনে উঠে ভোর বেলা নামতে পারবেন পুরুলিয়া। একই ট্রেনে ফিরতেও পারবেন। ফেরার ট্রেন পুরুলিয়া জংশন থেকে ছাড়ে রাত্রিতে। হাওড়ায় আসে ভোর চারটে নাগাদ।

বাস: ধর্মতলা থেকে প্রতি দিন বেশ কিছু বাস পুরুলিয়া যায়।

গাড়িতে: কলকাতা থেকে গাড়িতে ৫ ঘণ্টায় পুরুলিয়া পৌঁছনো যায়। কলকাতা থেকে সড়ক পথে দিল্লি রোড ধরে দুর্গাপুর বা আসানসোল হয়ে পৌঁছনো যায় পুরুলিয়া শহরে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.