Advertisement
১৩ এপ্রিল ২০২৪
How to manage tangled hair

বিয়ের সময় সাজের প্রয়োজনে চুলের সর্বনাশ করেছেন? কোন কোন উপায়ে যত্ন নেবেন, জানুন পদ্ধতি

বিয়ের সাজে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয় চুল

বিয়ের সাজে সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয় চুল

এবিপি ডিজিটাল কনটেন্ট স্টুডিয়ো
শেষ আপডেট: ২৪ মে ২০২৩ ১৭:৩৪
Share: Save:

বিয়ের সময় সব কনেই চান একদম মনের মতো করে সাজতে। সেই মতোই জোর কদমে চলে রূপচর্চাও। সঙ্গে গ্যাঁটের কড়ি খরচ করে রূপটান শিল্পী বুক করতেও ভোলেন না কনেরা। বিয়ে থেকে বৌভাত সব অনুষ্ঠানেই না হয় মন ভরে সাজগোজ করলেন। কিন্তু, তার পরে? জানেন কি, বিয়ের সাজে সব থেকে বেশি ক্ষতি হয় চুলের। নানান কায়দায় সাজতে গিয়ে চুলের উপর দিয়ে চলে দুর্যোগ! সাজের প্রয়োজনে চুলে বিভিন্ন কেমিক্যাল, হেয়ার স্প্রে, কাটা বা কিল্প ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়। তাই বিয়ের শেষে রাতে চুলের জট ছাড়াতে গিয়ে চুলের সর্বনাশ করে বসবেন না যেন! ঘরোয়া কিছু টোটকা ব্যবহারেই চুল থাকবে সতেজ ও উজ্জ্বল। জেনে নিন কী ভাবে —

১) চুল থেকে ক্লিপ বা কাটা খুলে ভাল করে নারকেল তেল লাগিয়ে নিন। এ ভাবেই সারা রাত রেখে দিন। পরের দিন সকালে উঠে চুলে হালকা করে চিরুনি দিয়ে আঁচড়ে তার পরে শ্যাম্পু করে কন্ডিশনার লাগিয়ে নিতে পারেন।

২) চুলের জট ছাড়ানোর সহজ উপায় লুকিয়ে রয়েছে আঙুলেই। কাজের ফাঁকে চিরুনির বদলে আঙুল দিয়ে ধীরে ধীরে চুলের জট ছাড়িয়ে নিন। জট ছেড়ে গেলে বড় দাঁড়ার চিরুনি দিয়ে আবার একবার চুলটা ভাল করে আঁচড়ে নেবেন।

৩) চুলের জট ছাড়াতে শুরু করলে, সব সময় নীচের দিক থেকে চুল আঁচড়ানো শুরু করুন। অন্তত দু’ইঞ্চি। ধীরে ধীরে আঁচড়ে জট ছাড়ান। এর পরে ধীরে ধীরে উপরের দিকে উঠুন। এই ভাবে চুল আঁচড়ালে জটও ছাড়াতে পারবেন সহজেই।

৪) বৌভাতের অনুষ্ঠান মিটে গেলে চুলের জন্য ব্যবহার করতে পারেন ঘরোয়া প্রোটিন প্যাক। এর জন্য প্রয়োজন ২ চা চামচ ঘন নারকেলের দুধ, ১টি ডিম, ১ চা চামচ মধু, ৩ চা চামচ কলা। এগুলি ভাল করে মিশিয়ে, পুরো চুলে এই প্রোটিন প্যাক লাগিয়ে অন্তত ১৫ মিনিট রেখে দিন। দেখবেন, যেন পুরোপুরি শুকিয়ে না যায়। তা হলে শ্যাম্পু করার পরেও চুলে প্রোটিন প্যাক লেগে থাকতে পারে। বরং ১ কাপ জলে ২ চা চামচ শ্যাম্পু গুলে নিয়ে তা দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

তা ছাড়াও যদি বিয়ের পর চুলের বাড়তি যত্ন নিতে চান তা হলে সে ক্ষেত্রে কী কী করনীয় —

চুলের প্রয়োজন অনুসারে সঠিক কন্ডিশনার ব্যবহার করুন

অনেকেই হয়তো জানেন না, শুধু শ্যাম্পুই চুলের জন্য যথেষ্ট নয়। শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই আপনাকে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। এমন কন্ডিশনার ব্যবহার করুন যা চুলের আর্দ্রতাকে ধরে রাখবে। এতে চুল অনেক বেশি নরম ও মসৃণ থাকবে। চুলে কন্ডিশনার লাগিয়ে মিনিট সাতেক অপেক্ষা করুন। তার পরে সাধারণ জল দিয়ে চুল ভাল করে ধুয়ে ফেলুন।

বড় দাঁড়ার চিরুনি ব্যবহার করুন

জট ছাড়ানোর জন্য সব সময় বড় দাঁড়ার চিরুনি ব্যবহার করবেন। সরু দাঁড়ার চিরুনি দিয়ে চুলের জট ছাড়ানো খুব কঠিন। এতে চুল আরও বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়, পাশাপাশি চুল ছিঁড়েও যায়। মোটা দাঁড়ার কাঠের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন। এতে চুলের জট ছেড়ে যাবে। তবে বেশি টানাটানি না করাই ভাল এতে মাথায় ব্যথা লাগতে পারে।

সপ্তাহে দু’দিন তেল ব্যবহার করুন

চুল খুলে ঘুমোলে অনেক সময় চুলে জট পড়ে যায়। এর কারণ হল চুলে আর্দ্রতার অভাব। এর জন্য নিয়মিত চুলে তেল মাখুন। চুলে তেল ব্যবহার করলে চুলের শুষ্কভাব অনেকটাই কমে যায়। এতে জট পড়ার সম্ভাবনাও কম থাকে।

এই প্রতিবেদনটি ‘সাত পাকে বাঁধা’ ফিচারের অংশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE