Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

চাঁদা তুলে খরচ উঠল অ্যাম্বুল্যান্সের

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাবড়া ১৮ অগস্ট ২০১৮ ০৭:২০
জলদি: ছেলেকে নিয়ে কলকাতায় চললেন মা। ছবি: সুজিত দুয়ারি

জলদি: ছেলেকে নিয়ে কলকাতায় চললেন মা। ছবি: সুজিত দুয়ারি

হাতে টাকা নেই। ছেলেকে নিয়ে বিপাকে পড়েছিলেন মা।

নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত দশ মাসের শিশু ফারহান ইসলামকে মঙ্গলবার দুপুরে হাবড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন মা মাসুদা বিবি। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টা নাগাদ শিশুর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকেরা তাকে ফুলবাগানে শিশু হাসপাতালে ‘রেফার’ করেন। তাতে সমস্যায় পড়েন মাসুদা। সঙ্গে ছিলেন এক মহিলা। ছেলেকে ফুলবাগান হাসপাতালে অ্যাম্বুল্যান্সে করে নিয়ে যাওয়ার মতো টাকা কাছে ছিল না। ছেলেকে নিয়ে বাপের বাড়ি অশোকনগরে থাকেন মাসুদা। অভিযোগ, হাসপাতালে ফ্রি অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবার ব্যবস্থা থাকলেও মাসুদা ফোন করে অ্যাম্বুল্যান্স পাননি।

হাসপাতালে কয়েকজন রোগীর আত্মীয় এগিয়ে আসেন। তাঁরা লোকজনের কাছ থেকেই চাঁদা তুলতে শুরু করেন। বেলা পৌনে ১২টা নাগাদ অ্যাম্বুল্যান্স ভাড়া করে মাসুদা ছেলেকে নিয়ে ফুলবাগান রওনা দেন। অক্সিজেন ও ভাড়া মিলিয়ে ১১০০ টাকা খরচ। চালক অবশ্য মাসুদার কাছ থেকে মাত্র ৪৫০ টাকা নিয়েছেন। নিজের কাছে থাকা সামান্য সোনাটুকু দিতে চেয়েছিলেন মাসুদা। কিন্তু তার কোনও দরকার নেই, জানান চালক।

Advertisement

কিন্তু কেন বিনা খরচের সরকারি অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা পেলেন না মাসুদা? হাসপাতাল সুপার শঙ্করলাল ঘোষ বলেন, ‘‘হাসপাতালে দু’টি ফ্রি অ্যাম্বুল্যান্স রয়েছে। ওই মহিলা যখন ফোন করেছিলেন, তখন তা রোগী নিয়ে দূরে ছিল। মহিলা অ্যাম্বুল্যান্স না পাওয়ার কথা প্রথমে আমাদের জানাননি।’’

আরও পড়ুন

Advertisement