Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
COVID-19 Vaccine

Covid-19 vaccination: কোভ্যাক্সিনের জোগান নেই পশ্চিম বর্ধমানে, দ্বিতীয় টিকা না পেয়ে উদ্বেগে অনেকেই

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৮ জুলাই পর্যন্ত ১০,৫০০ জনের দ্বিতীয় টিকা নেওয়ার নির্দিষ্ট দিন পার হয়ে গেলেও তাঁরা পাচ্ছেন না।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
আসানসোল শেষ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০২১ ২৩:০০
Share: Save:

কোভিশিল্ড মোটামুটি ভাবে পাওয়া গেলেও কোভ্যাক্সিন নিয়ে উদ্বেগজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে পশ্চিম বর্ধমান জেলা জুড়ে। যারা কোভ্যাক্সিনের প্রথম টিকা নিয়েছেন তাদের দ্বিতীয়টি নেওয়ার দিন পার হয়ে গেলেও তাঁরা টিকা পাচ্ছেন না বলে আভিযোগ।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানাচ্ছে, ২২ জুলাই নাগাদ কোভ্যাক্সিন পাওয়া যেতে পারে। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে ১৮ জুলাই পর্যন্ত এই জেলায় ১০,৫০০ জনের দ্বিতীয় টিকা নেওয়ার নির্দিষ্ট দিন পার হয়ে গেলেও তাঁরা দ্বিতীয়টি পাচ্ছেন না। জেলায় সার্বিক ভাবেও টিকাকরণের গতি খুব একটা আশাব্যঞ্জক নয়। এই জেলায় ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে মোট ২০ লক্ষ ৭০ হাজার ৮০৬ জনকে টিকা দিতে হবে। কিন্তু ১৮ জুলাই পর্যন্ত সাকুল্যে টিকা দেওয়া হয়েছে ৭ লাখ ৬৭ হাজার ৪৬৫ জনকে। অর্থাৎ এই জেলায় ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে টিকাকরণের বাইরে এখনও রয়ে গেছেন প্রায় ১৩ লক্ষ মানুষ।

জেলায় এখনো পর্যন্ত যে প্রায় সাড়ে ৭ লক্ষ মানুষকে কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া হয়েছে তাঁদের মধ্যে কোভিশিল্ড পেয়েছেন ৬ লক্ষ ৭৭ হাজার ৫৫৮ জন এবং কোভ্যাক্সিন পেয়েছেন ৮৯ হাজার ৯০৭ জন। সার্বিক ভাবে জেলায় এখনও পর্যন্ত টিকার প্রথম টিকা পেয়েছেন ৫ লাখ ৬৩ হাজার ৪৪ জন এবং দ্বিতীয় টিকা পেয়েছেন ২ লক্ষ ৩ হাজার ৫৭৭ জন।

সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী প্রথম টিকা নেওয়ার ২৮ থেকে ৪২ দিনের মধ্যে দ্বিতীয় কোভ্যাক্সিন টিকা নিতে হবে। কিন্তু জেলায় বেশ কিছু ব্যক্তির ৪২ দিন পার হয়ে গেলেও পাচ্ছেন না। স্বভাবতই তাঁরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। এ বিষয়ে জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক অশ্বিনী কুমার মাজি বলেন দ্বিতীয় টিকা সময় মতো নিলে ভাল। তবে জোগান কম হওয়ার জন্য দেরি হলেও শারীরিক কোনও সমস্যা হবে না।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE