Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

পরিস্থিতি দেখতে স্বাস্থ্যের দল গ্রামে

এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে এ দিন সকালেই ব্লক স্বাস্থ্য দফতরের কর্মীরা গ্রামে যান। ব্লক স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর তিনেক আগে গল

নিজস্ব সংবাদদাতা
বুদবুদ ১৯ জুন ২০১৭ ০৩:৪৪
প্রতীকী চিত্র।

প্রতীকী চিত্র।

বর্ষার গোড়াতেই এলাকায় ডেঙ্গিতে মৃত্যুর খবরে আতঙ্ক তৈরি হল বুদবুদে। শনিবার কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে মৃত্যু হয় বুদবুদের সুকান্তনগরের সরিতা দে-র। যদিও স্থানীয় প্রশাসনের দাবি, এলাকার পরিস্থিতির দিকে নজর রাখা হয়েছে।

সুকান্তনগরের টিটু দে-র সঙ্গে মাস আটেক আগে বিয়ে হয় সরিতার। শনিবার কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে তাঁর। রবিবার সুকান্তনগর-সহ বুদবুদের নানা এলাকার বাসিন্দারা সেই খবর পান। আর তার পরেই কিছুটা আতঙ্ক চেপে বসেছে এলাকাবাসীর মধ্যে। বাইপাসের ধারে এই সুকান্তনগর গ্রামে জনবসতি খুব তেমন পুরনো নয়। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বুদবুদ পঞ্চায়েতের অন্তর্গত নতুন এই পল্লি বছর পাঁচেক আগে এক বার ‘নির্মল গ্রাম’ হিসেবে পুরস্কৃতও হয়েছিল। গ্রামের বাসিন্দা তপন বিশ্বাস, অরুণ হালদারেরা জানান, চার দিকে খেতজমি থাকায় মাঝে-মাঝে মশার উপদ্রব বাড়ে। তবে কোথাও কোনও ঝোপঝাড় থাকলে সেগুলি তাঁরাই সাফ করে ফেলেন।

এলাকার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে এ দিন সকালেই ব্লক স্বাস্থ্য দফতরের কর্মীরা গ্রামে যান। ব্লক স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর তিনেক আগে গলসি ১ ব্লকে এক যুবকের দেহে ডেঙ্গির সংক্রমণ ধরা পড়ে। তবে তিনি কলকাতায় থাকতেন। এ ছাড়া কয়েকজনের ডেঙ্গি ধরা পড়লেও এর আগে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক মহাপ্রসাদ পাল বলেন, ‘‘গ্রামে এখনও আর কারও কোনও অসুস্থতা ধরা পড়েনি।’’ স্থানীয় প্রশাসনের তরফেও গ্রামটিতে বিশেষ নজর দেওয়া হচ্ছে বলে জানান গলসি ১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি জনার্দন চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘‘ব্লকের প্রতিটি গ্রামেই বিশেষ ভাবে নজর দেওয়া হচ্ছে। কোথাও আবর্জনা, জমা জল থাকলে তা পরিষ্কার করে ফেলতে বলা হয়েছে।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement