Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

bike smuggling: উদ্ধার সাতটি বাইক, ধৃত তিন জন

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৫:৫৮
উদ্ধার হয়েছে এই মোটরবাইকগুলি। রানিগঞ্জে।

উদ্ধার হয়েছে এই মোটরবাইকগুলি। রানিগঞ্জে।
নিজস্ব চিত্র।

মোটরবাইক চুরির একটি ‘চক্রকে’ সম্প্রতি পাকড়াও করার কথা জানিয়েছে রানিগঞ্জের আমরাসোঁতা ফাঁড়ি এবং কুলটির নিয়ামতপুর ফাঁড়ি। উদ্ধার করা হয়েছে, মোট সাতটি চুরি যাওয়া মোটরবাইক। ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মোট তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

আমরাসোঁতা ফাঁড়ি সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি রানিগঞ্জের তিনটি এলাকায় সিসি ক্যামেরার ফুটেজে এক জনকে মোটরবাইক চুরি করতে দেখা গিয়েছিল। এর পরে, গত ১৮ সেপ্টেম্বর কুলটির নিয়ামতপুর ফাঁড়ি চিনাকুড়ি থেকে একটি মোটরবাইক-সহ শিরকিট নামে এক জনকে গ্রেফতার করে। নিয়ামতপুর ফাঁড়ি ওই ব্যক্তির থেকেই জানতে পারে, এই চক্রের ‘মাথা’ বারাবনির গিরমিটের বাসিন্দা শেখ নাসিম। কিছু দিনের মধ্যেই নিয়ামতপুর ফাঁড়ি শেখ নাসিমকেও গ্রেফতার করে। আমরাসোঁতা ফাঁড়ি জানিয়েছে, গত ২০ সেপ্টেম্বর নিয়ামতপুর ফাঁড়িতে গিয়ে শেখ নাসিমের সঙ্গে কথা বলে তারা জেনেছে, নাসিমকেই রানিগঞ্জের সিসি ক্যামেরায় চুরি করতে দেখা গিয়েছিল।

বিষয়টি জানার পরে, আমরাসোঁতা ফাঁড়ি রানিগঞ্জ থেকে চুরি যাওয়া মোটরবাইকগুলির সন্ধানে নামে। পুলিশের দাবি, শেখ নাসিম জেরায় তাঁদের কাছে জানান, রানিগঞ্জে চুরি করা সব ক’টি মোটরবাইক রনাই ইদগার বাসিন্দা শেখ সেলিমকে বিক্রি করার জন্য দিয়েছেন। এর পরে, আমরাসোঁতা ফাঁড়ি সেলিমকেও গ্রেফতার করে। তাঁকে গত ২১ সেপ্টেম্বর আদালতে তোলা হলে, চার দিন পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

Advertisement

এই পরিস্থিতিতে আমরাসোঁতা ফাঁড়ি জানিয়েছে, পর পর দু’দিন সেলিমের কথা মতো বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালানো হয়। কিন্তু একটি মোটরবাইকের সন্ধানও মেলেনি। তবে, শুক্রবার পুলিশ জানতে পারে রনাই ইদগায় সেলিমের বাড়ির কাছেই একটি পরিত্যক্ত পাঁচিলের পিছনে ছ’টি মোটরবাইক রাখা আছে। তার পরে পুলিশ সেলিমকে সঙ্গে নিয়ে গিয়ে মোটরবাইকগুলি উদ্ধার করে। শনিবার ফের আসানসোল আদালতে তোলা হয় সেলিমকে। তাঁকে সাত দিন পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের এসিপি (‌সেন্ট্রাল ২) তথাগত পান্ডে বলেন, “একটি মোটরবাইক চুরি-চক্রের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। আরও কিছু তথ্য জোগাড় করা হচ্ছে। এই চক্রের সঙ্গে আরও কারা জড়িত, সে খবর নেওয়া হচ্ছে।”

ঘটনাচক্রে, পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বছরখানেক আগে রানিগঞ্জ থানা সেলিমকে গ্রেফতার করে দশটি মোটরবাইক উদ্ধার করেছিল। সে মামলায় জামিনে মুক্ত হন তিনি। সেলিম দিনে রাজমিস্ত্রির কাজ করতেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement