×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

তৃণমূল বিধায়ক খুনের মামলায় মুকুল রায়কে চার্জশিট সিআইডি-র

নিজস্ব সংবাদদাতা
রানাঘাট ০৫ ডিসেম্বর ২০২০ ১৫:১৪
মুকুল রায় এবং সত্যজিৎ বিশ্বাস— ফাইল চিত্র।

মুকুল রায় এবং সত্যজিৎ বিশ্বাস— ফাইল চিত্র।

নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাস খুনের মামলায় বিজেপি-র সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে চার্জশিট পেশ করল সিআইডি। শনিবার নদিয়ার রানাঘাট আদালতে পেশ করা অতিরিক্ত চার্জশিটে মুকুলের বিরুদ্ধে খুনের ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অভিযোগ এনেছে সিআইডি।

তাঁর বিরুদ্ধে সিআইডি-র চার্জশিট দেওয়া প্রসঙ্গে মুকুল বলেন, ‘‘হতেই পারে, কেন নয়? বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কে? চার্জশিটে নাম দিচ্ছে কে? দপ্তরের মন্ত্রী কে? জিজ্ঞাসা করুন এই রাজ্যের পুলিশ মন্ত্রীর নাম কি? তিনি জানেন না এই ঘটনায় কারা যুক্ত? তাঁরই নির্দেশে, তাঁরই অঙ্গুলিহেলনে যদি আমার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হয়, তবে এটা একটা বড় হাস্যকর ব্যাপার।’’ প্রসঙ্গত, রাজ্যের পুলিশ ততা স্বরাষ্ট্র দফতরের ভার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে।

২০১৯ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি, সরস্বতী পুজোর আগের রাতে নদিয়ার হাঁসখালিতে নিজের বাড়ির কাছেই গুলিতে খুন হয়েছিলেন সত্যজিৎ। ওই মামলায় সিআইডি পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছিল। গত বছর ১৪ জুন তিন জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেওয়া হয়, প্রমাণাভাবে নিষ্কৃতি পান দু’জন। এফআইআর-এ রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার এবং মুকুলের নাম ‘সন্দেহভাজন’ হিসেবে থাকলেও প্রথম চার্জশিটে তা ছিল না।

Advertisement

আরও পড়ুন: সামনে এল নৌসেনার ‘ডুবোজাহাজ শিকারি’ রোমিয়ো

এরপর গত ১৪ সেপ্টেম্বর রানাঘাট আদালতে অতিরিক্ত চার্জশিট পেশ করে জগন্নাথকে অভিযুক্ত করে সিআইডি। তাঁকে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ (খুন) এবং ১২০-বি (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র) ধারায় অভিযুক্ত করা হয়। চার্জশিটে জানানো হয়েছিল, মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

আরও পড়ুন: পরীক্ষা সফল, চিনের বিমান হানা ঠেকাতে এ বার এলএসি-তে ‘আকাশ’

Advertisement