Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

পঞ্চায়েত সম্মেলন পিছিয়ে সবংয়ে ঝাঁপাচ্ছে কংগ্রেস

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৩:২৫

দল ভাঙিয়ে মানস ভুঁইয়াকে রাজ্যসভার সাংসদ করেছিল তৃণমূল। এ বার তাঁর স্ত্রী গীতা ভুঁইয়াকে প্রার্থী করে সবং বিধানসভা আসন দখল নিতে চাইছে শাসক দল। এমতাবস্থায় দীর্ঘ দিনের গড় রক্ষায় মরিয়া হয়ে ঝাঁপাতে চাইছে কংগ্রেসও।

জেলায় জেলায় সম্মেলন ও প্রস্তুতি শেষে আগামী ২৩ ডিসেম্বর নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে প্রদেশ কংগ্রেসের পঞ্চায়েতিরাজ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। পরিকল্পনা ছিল, কংগ্রেসের সভাপতি হিসাবে আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্ব নেওয়ার পরে রাহুল গাঁধীকে ওই ম়ঞ্চেই প্রথম বার এ রাজ্যে হাজির করানোর চেষ্টা হবে। কিন্তু ২১ ডিসেম্বর সবংয়ের উপনির্বাচনের জন্য পঞ্চায়েতিরাজ সম্মেলন আপাতত পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। তার বদলে সবং কেন্দ্রে নজর দেওয়ার জন্য দলের সব নেতা-বিধায়ক-সাংসদকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। বিধান ভবনে দু’দিন আগে প্রদেশ নেতৃত্বের সঙ্গে সবং নিয়ে এক প্রস্ত বৈঠক করেছেন তিনি। তার রেশ ধরেই বৃহস্পতিবার বিধানসভায় পরিষদীয় দলের ঘরোয়া আলোচনায় বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান বিধায়কদের কাছেও প্রদেশ সভাপতির বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন।

কংগ্রেসের এক বিধায়কের কথায়, ‘‘ছাত্র পরিষদের কর্মী, সবং কলেজের কৃষ্ণপ্রসাদ জানার খুনের ঘটনায় মানসবাবুর নাম জড়িয়েছিল তৃণমূল। মানসবাবু সেই চক্রান্তের বিরুদ্ধে কলকাতায় অনশন পর্যন্ত করেছিলেন। তার পরে তিনি সেই তৃণমূলেরই পতাকা হাতে নিয়ে নিলেন! সবংয়ে গিয়ে এই সব কথা আমাদের বলতে হবে।’’ এআইসিসি-র নির্ঘণ্ট অনুযায়ী, কংগ্রেস সভাপতি পদের জন্য মনোনয়ন জমা দেওয়া হবে ৪ ডিসেম্বর, সোমবার। ওই কর্মসূচিতে হাজির থাকার জন্য মান্নান-সহ এক ঝাঁক বিধায়ক দিল্লি যাচ্ছেন। মহাজাতি সদনে রবিবার প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সির স্মরণসভা সেরে তাঁদের দিল্লি চলে যাওয়ার কথা। তার পরে প্রদেশ নেতৃত্ব সবংয়ে নজর দেবেন।

Advertisement

এখনও এআইসিসি-র সিলমোহর না এলেও সবংয়ে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কংগ্রেসের অন্যতম সাধারণ সম্পাদক ও মেদিনীপুর আদালতের আইনজীবী চিরঞ্জীব ভৌমিক। কংগ্রেস সূত্রের বক্তব্য, সবং হাসপাতালের জন্য ২৫ বিঘা জমি চিরঞ্জীববাবুর স্বাধীনতা সংগ্রামী ঠাকুর্দা, প্রয়াত হরিপদ ভৌমিকের দান করা। আদ্যন্ত কংগ্রেস পরিবারের চিরঞ্জীবকে দিয়েই সবংয়ে লড়াইয়ে নামতে চাইছেন অধীরবাবুরা। তবে সিপিএম তাঁদের জোট-প্রস্তাব না মানায় সবংয়ে যে প্রথমেই ধাক্কা খেতে হল, তা মেনে নিচ্ছেন প্রদেশ নেতৃত্ব। বামেরা কংগ্রেসকেই সমর্থন দিলে বা নিদেনপক্ষে সিপিএমের বদলে বিপ্লবী বাংলা কংগ্রেসের মতো কোনও ছোট বাম দলের প্রার্থী থাকলে তৃণমূল ও বিজেপি, দু’পক্ষকেই চাপে রাখা যেত বলে অধীর-মান্নানদের আক্ষেপ।



Tags:
Congressমানস ভুঁইয়া Manas Bhunia

আরও পড়ুন

Advertisement