×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৫ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

সক্রিয় রোগী কম, বাড়ছে সুস্থতার হার, রাজ্যে করোনা গ্রাফে স্বস্তি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৬ নভেম্বর ২০২০ ২৩:০২
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

রাজ্যে কমছে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা। কমছে ‘পজিটিভিটি রেট’ বা সংক্রমণের হার। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সু্স্থতার হার। সব মিলিয়ে রাজ্যের করোনা গ্রাফে উন্নতির প্রবণতা বজায় রইল বৃহস্পতিবারও। তবে দৈনিক সংক্রমণ এবং দৈনিক সুস্থের সংখ্যার মধ্যে ব্যবধান কমে যাওয়া চিন্তায় রাখল স্বাস্থ্যকর্তাদের।

রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত এ দিনের বুলেটিন অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত এ রাজ্যে মোট ৪ লক্ষ ৭০ হাজার ৪৯৮ জন করোনা আক্রান্ত। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লক্ষ ৩৭ হাজার ৬০৪ জন। এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৪ হাজার ৬৭০ জন, যা গত কালকের থেকেও কিছুটা কম।

Advertisement

এ দিনই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ৫৩৭ জন। রাজ্যে এ দিনও নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ফের দৈনিক সুস্থের থেকে কম, ৩ হাজার ৫০৭ জন। তবে যত দিন গড়াচ্ছে ততই ব্যবধান কমেছে দৈনিক আক্রান্ত এবং দৈনিক সুস্থের মধ্যে।

এ দিনই হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩ হাজার ৫৩৭ জন। রাজ্যে এ দিনও নতুন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ফের দৈনিক সুস্থের থেকে কম, ৩ হাজার ৫০৭ জন। তবে যত দিন গড়াচ্ছে ততই ব্যবধান কমেছে দৈনিক আক্রান্ত এবং দৈনিক সুস্থের মধ্যে।

(গ্রাফের উপর হোভার বা টাচ করলে প্রত্যেক দিনের পরিসংখ্যান দেখতে পাবেন।)

আরও পড়ুন: এইচআরবিসি ছাড়লেন শুভেন্দু, তীব্র মন্ত্রিত্ব ও দলত্যাগ জল্পনা

আরও পড়ুন: মহেশতলার মাঠে মারাদোনার সেই পায়ের ছাপ কোথায়! জানেন না কেউ

কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা, রাজ্যে সংক্রমণের নিরিখে প্রথম থেকেই টক্কর চলছে এই দুই জেলার। এ দিন কলকাতায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮৮৫ জন। উত্তর ২৪ পরগনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৮৫১ জন। এ ছাড়াও নদিয়ায় ২৪৭ এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২৩০ জন করোনা আক্রান্ত। হুগলিতে ১৯২, হাওড়ায় ১৮২ এবং দার্জিলিঙে ১২৯ জন নতুন করে অতিমারির কবলে পড়েছেন এ দিন।

এ দিন রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের। এর ফলে রাজ্যে মোট মৃত্যু হল ৮ হাজার ২২৪ জনের। এ দিন কলকাতায় এবং উত্তর ২৪ পরগনায় ১২ জন করে প্রাণ হারিয়েছেন। এ ছাড়াও হাওড়ায় ৬ এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৪ জনের মারা গিয়েছেন।

এ দিন রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৫২ জনের। এর ফলে রাজ্যে মোট মৃত্যু হল ৮ হাজার ২২৪ জনের। এ দিন কলকাতায় এবং উত্তর ২৪ পরগনায় ১২ জন করে প্রাণ হারিয়েছেন। এ ছাড়াও হাওড়ায় ৬ এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৪ জনের মারা গিয়েছেন।

গত কয়েক দিন ধরে রোজই রাজ্যে সুস্থতার হারের গ্রাফটা ঊর্ধ্বমুখী। গত কাল তা ৯২.৯৫ শতাংশ। এ দিন আরও আরও কয়েক ধাপ বেড়ে হয়েছে ৯৩.০১%।

প্রতিদিন যে সংখ্যা কোভিড টেস্ট করা হয় এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত জনের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাকেই পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার বলে। এদিনের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য জুড়ে ৪৪ হাজার ৭১৩টি কোভিড টেস্ট হয়েছে। তার মধ্যে পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে সাড়ে ৩ হাজারের বেশি। ফলে শতাংশের নিরিখে সংক্রমণের হার বা ‘পজিটিভিটি রেট’ হল ৭.৮৪ শতাংশ যা গত কালকের থেকে কিছুটা কম।

প্রতিদিন যে সংখ্যা কোভিড টেস্ট করা হয় এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত জনের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে, তাকেই পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার বলে। এদিনের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য জুড়ে ৪৪ হাজার ৭১৩টি কোভিড টেস্ট হয়েছে। তার মধ্যে পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে সাড়ে ৩ হাজারের বেশি। ফলে শতাংশের নিরিখে সংক্রমণের হার বা ‘পজিটিভিটি রেট’ হল ৭.৮৪ শতাংশ যা গত কালকের থেকে কিছুটা কম।

Advertisement