×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

তারস্বরে মাইক বাজানোকে কেন্দ্র করে পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধ, বিধায়ককে ঘিরে বিক্ষোভ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ২০:০১
বিধায়ককে ঘিরে বিক্ষোভ।—নিজস্ব চিত্র।

বিধায়ককে ঘিরে বিক্ষোভ।—নিজস্ব চিত্র।

অনুষ্ঠানে তারস্বরে মাইক বাজানোকে কেন্দ্র করে কার্যত রণক্ষেত্র নিউটাউন সংলগ্ন পাথরঘাটা এলাকা। এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী-সহ আহত হয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এক দিকে যেমন পুলিশের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে, তেমনই এলাকাবাসীদের দাবি, পুলিশ তাদের ধরে মারধর করেছে।

মাধ্যমিক পরীক্ষা চলাকালীন মাইক বাজানো একেবারেই নিষিদ্ধ। তা সত্ত্বেও প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা উড়িয়ে মাইক চলছিল একটি পুজোর অনুষ্ঠানে। বুধবার রাতে এলাকার একাংশের বাসিন্দা নিউটাউন থানায় এ নিয়ে অভিযোগ করেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ।

এর পরেই জনতা-পুলিশের মধ্যে খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায়। উত্তেজিত জনতা পাথরঘাটা রাস্তা অবরোধ করেন। টায়ার জ্বালিয়ে, গাছের গুঁড়ি ফেলে রাস্তা আটকে দেন তাঁরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে। ঘটনাস্থলে মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

Advertisement

আরও পড়ুন: পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে হামলা, নিহত ১৮ জওয়ান, দায় নিল জৈশ-ই-মহম্মদ​

আরও পড়ুন: রাজীব কুমারকে জেরা করে উল্লেখযোগ্য তথ্য হাতে এসেছে, দাবি সিবিআইয়ের​

পুলিশের অভিযোগ, তাদের বাইক ভাঙচুর করে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়েছে। ঘটনায় দু’জন পুলিশকর্মী আহত হন। তাঁদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, বহু বছর ধরেই ওই পুজো হয়ে আসছে। কিন্তু, মাইক বন্ধ করার নামে পুলিশ মারধর করেছে, এ রকম আগে ঘটেনি।

ঘটনার খবর পেয়ে, ঘটনাস্থলে যান বিধায়ক তথা বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত। তাঁকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখান বাসিন্দারা। সব্যসাচীবাবু বলেন, “যারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের কঠোর শাস্তি হবে।”

পরে অবশ্য বিধায়কের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন স্থানীয় বাসিন্দারা। গাড়ি চলাচল শুরু হলেও এলাকা থমথমে।

(কলকাতার ঘটনা এবং দুর্ঘটনা, কলকাতার ক্রাইম, কলকাতার প্রেম - শহরের সব ধরনের সেরা খবর পেতে চোখ রাখুন আমাদের কলকাতা বিভাগে।)

Advertisement