×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

সন্দেহের বশে স্ত্রীকে খুন, ধৃত স্বামী

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৩ ডিসেম্বর ২০২০ ০২:৪৪
—প্রতীকী ছবি।

—প্রতীকী ছবি।

লকডাউনের পরে স্বামীর কাছে যেতে চাননি। স্বামীর সন্দেহ হয়, স্ত্রী অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। সেই সন্দেহের বশেই ঝগড়া আর তার পরেই স্ত্রীকে ছুরি মেরে খুন করল এক ব্যক্তি। ঘটনাটি মঙ্গলবার বিকেলে বেলেঘাটা থানা এলাকার চাউলপট্টি রোডের। ঘটনাস্থল থেকেই পুলিশ স্বামীকে গ্রেফতার করেছে। ধৃতের নাম দিলীপ সর্দার।

পুলিশ সূত্রের খবর, এ দিন বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ ২, চাউলপট্টির সামনে সুনীতা সর্দার নামে এক বছর ছাব্বিশের এক তরুণীকে তাঁর স্বামী দিলীপ ঝগড়ার মাঝেই ছুরি দিয়ে মারে। রক্তাক্ত সুনীতাকে উদ্ধার করে পরিজনেরাই নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু তত ক্ষণে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে চিকিৎসকেরা জানান।

এ দিকে ঘটনাস্থল থেকে সুনীতার স্বামীকে ধরে ফেলে প্রতিবেশীরাই বেলেঘাটা থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ গেলে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় দিলীপকে।

Advertisement

আরও পড়ুন: কাল কাঁথির সভায় আমন্ত্রণ শিশিরকে, জানালেন, অসুস্থ তাই থাকছেন না

আরও পড়ুন: নেপালে গভীর সঙ্কট, দলীয় চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরলেন ওলি

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জেনেছে, রোজই মদ খেয়ে স্ত্রীকে মারধর করত দিলীপ। লকডাউন শুরু হতেই সুনীতা বাবা-মায়ের কাছে চলে এসেছিলেন। এ দিন দিলীপ তাঁকে জোর করে বাড়ি নিয়ে যেতে চায়। কিন্তু সুনীতা রাজি হননি। এই নিয়েই দু’জনের মধ্যে ঝগড়া শুরু হয়। পুলিশকে আত্মীয় এবং প্রতিবেশীরা জানান, সুনীতা স্বামীর সঙ্গে যেতে না চাওয়ায় দিলীপ সন্দেহ করত যে সুনীতার অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে।

Advertisement