Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ই-পেপার

ট্র্যাফিক আইন ভঙ্গে ‘ই-চালান’ দেবে পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৯ জুন ২০২১ ০৭:৩৩


ফাইল চিত্র

রাস্তায় গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে ট্র্যাফিক আইন ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে এ বার ‘ই-চালান’ ব্যবস্থা চালু করতে চলেছে লালবাজার। শুধু কলকাতা বা এই রাজ্যেই নয়, এর মাধ্যমে ভিন্‌ রাজ্যের কোনও গাড়ি কোথাও ট্র্যাফিক আইন ভাঙলে সেটাও জানতে পারবেন রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশকর্মীরা। আবার ট্র্যাফিক আইনভঙ্গের জন্য ভিন্‌ রাজ্যে গিয়েও জরিমানার টাকা জমা দিতে পারবেন চালকেরা।

এর পাশাপাশি, পারমিটের নিয়মভঙ্গ করার মতো অন্যান্য ট্র্যাফিক জরিমানার টাকাও ওই সর্বভারতীয় ই-চালান ব্যবস্থার মাধ্যমেই জমা দিতে পারবেন গাড়িচালক বা মালিক, যা এত দিন অনলাইনে দেওয়া যেত না। আবার যাঁরা গাড়ির ডিজিটাল নথি কিংবা লাইসেন্স ব্যবহার করেন, তাঁদের ক্ষেত্রেও সেই লাইসেন্স বা নথি বাজেয়াপ্ত করতে পারবে পুলিশ।

কলকাতার রাস্তায় গাড়ি নিয়ে বেরিয়ে ট্র্যাফিক নিয়ম লঙ্ঘন করলে পুলিশ জরিমানা করে কাগজের চালান ধরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা চালু রয়েছে বহু দিন ধরেই। মাঝে ‘পেপারলেস চালান’ বা ‘কেপিটি ই-চালান’ চালু হলেও সেখানে সব রকমের সুযোগসুবিধা ছিল না। লালবাজার জানিয়েছে, খুব শীঘ্রই ই-চালান ব্যবস্থা চালু হবে। এর মহড়া হিসেবে গত সপ্তাহ থেকেই হেড কোয়ার্টার্স ট্র্যাফিক গার্ডের পাঁচ জন অফিসার ই-চালানের ব্যবহার শুরু করেছেন।

Advertisement

ট্র্যাফিক পুলিশ সূত্রের খবর, দেশের একাধিক রাজ্যে এই নতুন ব্যবস্থা চালু আছে। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে যুগ্ম কমিশনার (ট্র্যাফিক)-এর নেতৃত্বে একটি কমিটি রয়েছে, যারা ওই ই-চালান পদ্ধতি চালুর বিষয়টি দেখছে। এই ব্যবস্থা চালু হলে সারা দেশের জন্য একটিই সার্ভার ব্যবহার করা হবে, যাতে সব রাজ্যের গাড়ি সংক্রান্ত তথ্য থাকবে। এক পুলিশকর্তা জানান, এত দিন ভিন্‌ রাজ্যের গাড়িকে সাইটেশন কেস দেওয়া হলে জরিমানার টাকা এখানে জমা না-দিয়েই সেই গাড়ি ভিন্‌ রাজ্যে চলে যেত। অথচ সেখানের পুলিশ জানতেই পারত না যে, ওই গাড়িটি অন্য রাজ্যে ট্র্যাফিক আইন অমান্য করে এসেছে। এ বার এনআইসি ই-চালান চালু হলে এই সংক্রান্ত সব তথ্য সেখান থেকেই মিলবে। ফলে সেই গাড়িচালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেও সুবিধা হবে।

লালবাজার জানাচ্ছে, এই ব্যবস্থায় ট্র্যাফিক সার্জেন্টদের স্মার্টফোনে এনআইসি ই-চালান অ্যাপ দেওয়া হবে। তার মাধ্যমেই জরিমানা করতে পারবেন তাঁরা। গাড়ির মালিক বা চালকের মোবাইলে মেসেজে একটি লিঙ্ক যাবে। সেটি খুললেই কী কারণে, কোন ধারায়, কেন ওই গাড়িটিকে জরিমানা করা হচ্ছে তা জানা যাবে। এর সঙ্গে কোথায় সেই গাড়ি ট্র্যাফিক আইন অমান্য করেছে, তা-ও জানিয়ে দেবে জিপিএস। গাড়ি চালক বা মালিকও ওই লিঙ্কের মাধ্যমেই জরিমানার টাকা দিতে পারবেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন

More from My Kolkata
Advertisement