Advertisement
২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Mamata Banerjee

বহিরাগতদের দিয়ে বাংলা দখল করতে দেব না, বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ মমতার

এ দিনের জনসভায়  উপস্থিত পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সী, পূর্ণেন্দু বসু, মানস ভুঁইয়া, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এবং ছত্রধর মাহাতো।

মেদিনীপুর কলেজ মাঠে সমাবেশ মঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র

মেদিনীপুর কলেজ মাঠে সমাবেশ মঞ্চে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেদিনীপুর শেষ আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২০ ১২:০৪
Share: Save:

মেদিনীপুরের জনসভা থেকে নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকে বার্তা দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুভেন্দুকে নিয়ে জল্পনার আবহেই মমতার মন্তব্য, ‘‘যদি কেউ মনে করে তৃণমূলকে ব্ল্যাকমেল করব, বার্গেন করব, ভোটের সময় দলকে বিপদে ফেলব, জেনে রাখুন কিছু করতে পারবেন না।’’ এর পাশাপাশি, ‘‘অধিকারী-ব্যানার্জি সকলকে নিয়েই সংসার’’— এই বার্তাও জনসভা থেকে দিয়ে রেখেছেন মমতা। এ দিনের জনসভায় উপস্থিত ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত বক্সী, পূর্ণেন্দু বসু, মানস ভুঁইয়া, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এবং ছত্রধর মাহাতোও।

• মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তৃতা

• পশ্চিম মেদিনীপুরের সব বিধায়ক মঞ্চে উপস্থিত।

• ছত্রধর মাহাতোকে সমাবেশে আসতে বলেছিলাম।

• ওকে মাওবাদী তকমা দিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছিল বলে অভিযোগ মমতার।

• ছত্রধর সে সময় তৃণমূলের ব্লক সভাপতি ছিল বলে দাবি মমতার।

• মেদিনীপুরের এই সমাবেশ যেন দ্বিতীয় ব্রিগেড, বললেন মমতা

• আমরা কৃষকদের পাশে ছিলাম, আছি, থাকব।

• মেদিনীপুর থেকে দিল্লির কৃষকদের বার্তা মমতার

• আমি সিঙ্গুর, নন্দীগ্রাম, নেতাই ভুলিনি, বললেন মমতা।

• কাল ব্লকে ব্লকে ধরনা কর্মসূচি চলবে।

• আগামি কালকের বন্‌ধকে সমর্থন জানাচ্ছি, বললেন মমতা

• নীতিগত ভাবে আমরা বন্‌ধের বিরুদ্ধে, ফের জানালেন মমতা

• তবে ধর্মঘটকে সমর্থন করছি না, মন্তব্য মমতার

• কৃষিপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে বিজেপিকে তোপ মমতার

• কৃষকদের ক্ষমতা কেড়ে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ মমতার

• সিপিএম, কংগ্রেস এবং বিজেপিকে একাসনে বসিয়ে আক্রমণ মমতার

• বিজেপি লোকের ঘর ভাঙছে, ওদের ভারতের মাটি থেকে উৎখাত করতে হবে, আহ্বান মমতার

• রেল, প্রতিরক্ষা, ব্যাঙ্ক, কয়লা বেসরকারিকরণ নিয়ে কেন্দ্রকে তোপ।

• সব বিক্রি হলে গেলে কী থাকবে? কমরেডদের জিজ্ঞাসা করুন, তোপ মমতার

• রাজ্যে ৩ ভাই এক হয়েছে বলে কংগ্রেস, সিপিএম এবং বিজেপিকে তোপ

• সিপিএম কঙ্কালকাণ্ড, সিঙ্গুর, নেতাই, নন্দীগ্রাম করেছিল, আজ ওরাই বিজেপি

• এক জন রক্ষক, এক জন ভক্ষক, আর এক জন তক্ষক

• বহিরাগতদের দিয়ে বাংলা দখলের চক্রান্ত সফল হতে দেব না, বললেন মমতা

• আপনারা ব্লকে ব্লকে নজর রাখুন, দলীয় নেতাকর্মীদের বার্তা মমতার

• তৃণমূলকে টাকা দিয়ে কেনা যাবে না, মন্তব্য মমতার

• আগুন নিয়ে খেলবেন না, বিজেপিকে হুঁশিয়ারি তৃণমূল নেত্রীর

• যদি কেউ মনে করে তৃণমূলকে ব্ল্যাকমেল করব, বার্গেন করব, ভোটের সময় দলকে বিপদে ফেলব— জেনে রাখুন কিছু করতে পারবেন না। অধিকারী, চ্যাটার্জি সকলকে নিয়েই সংসার। নাম না করে শুভেন্দুকে বার্তা দলনেত্রীর।

• সিপিএমের আমলে রেশন কেলেঙ্কারি হয়েছিল, তোপ মমতার

• বিজেপিকে দুর্নীতি নিয়ে লাগাতার আক্রমণ মমতার

• আমরা উন্নয়ন করছি, ওরা টাকা না দিয়েই হিসাব চাইছে, বিজেপিকে তোপ মমতার

• টাকার জন্য বিজেপির সঙ্গে দোস্তি করব না, মন্তব্য মমতার

• বিজেপি এনআরসি, সিএএ নিয়ে কী করেছে? প্রশ্ন মমতার

• অসমে ২০ লক্ষ বাঙালির নাম বাদ দিয়েছে বিজেপি, তোপ মমতার

• বাংলা গুজরাত হবে না, মন্তব্য মমতার

• বাংলায় গুন্ডামি বরদাস্ত করা হবে না, হুঁশিয়ারি মমতার

• বিজেপির কাছে সব আছে, কিন্তু তৃণমূলের মতো কর্মী নেই, বার্তা মমতার

• তাজপুর বন্দরে বিপুল কর্মসংস্থান হবে, মৎস্যজীবীরা উপকৃত হবেন, আশ্বাস মমতার

• বীরভূমে দেউচা-পাচামি কয়লা প্রকল্প হতে চলেছে, ঘোষণা মমতার

মানস ভুঁইয়ার বক্তৃতা

• দেশের রাজধানীতে কৃষকরা আন্দোলন চালাচ্ছেন।

• আন্দোলনকারী কৃষকদের প্রতি সমর্থন রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

• বিজেপি দেশকে বিক্রি করে দিচ্ছে, তোপ মানসের

• বিজেপি কৃষক বিরোধী আইন তৈরি করে জমি, ফসলের অধিকার কেড়ে নিয়েছে বলে আক্রমণ মানসের

• মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথম এর প্রতিবাদ করেছিলেন, দাবি মানসের

• নীলকর সাহেবদের মতো হয়ে উঠেছে বিজেপি

• মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘ভারতের অগ্নিকন্যা’ বলে আখ্যা মানসের

• মমতাকে সরাতে বিজেপির সঙ্গে রাজ্যে হাত মিলিয়েছে সিপিএম এবং কংগ্রেস, বিরোধীদের নিশানা মানসের

• কিছু মিরজাফর, বিভীষণ রয়েছে বলে আক্রমণ মানসের

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বক্তৃতা

• মমতা কী বলবেন আমরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।

• দলনেত্রীর নির্দেশই আমাদের রোডম্যাপ।

• ২০০ আসনের কথা বলে লাভ নেই, বিজেপিকে কটাক্ষ পার্থর।

• ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্প এবং ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির পক্ষে সওয়াল মমতার

• যারা কাজ না করে সমালোচনা করছে তাদের কথা শুনতে অভ্যস্ত নই, মমতা

• বিজেপি লুঠেরাদের আশ্রয় দিচ্ছে, তোপ মমতার

• টাকার জোরে দল ভাঙছে, সরকার ভাঙছে, গেরুয়াশিবিরকে নিশানা তৃণমূলনেত্রীর

• মহাত্মা গাঁধীকে যারা হত্যা করেছে তাদের কাছে বামলা মাথা নত করবে না, বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

• কারও কাছে মাথা নত করবেন না, দলীয় নেতাকর্মীদের বার্তা তৃণমূল নেত্রীর

বেলা ১২টা নাগাদ শহরের কলেজ মাঠে জনসভা। ইতিমধ্যেই সভায় যোগ দিতে শুরু করেছেন বিভিন্ন এলাকার তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। গত কালই রাতে মেদিনীপুর শহরের সার্কিট হাউসে পৌঁছন মমতা। সেখান থেকে জনসভায় যোগ দেবেন তিনি। তাঁর এই সফর ঘিরে ইতিমধ্যেই মেদিনীপুর শহর মুড়ে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তার চাদরে।

মমতার এ দিনের সভায় অধিকারী পরিবারের কোনও সদস্য থাকছেন কি না তা নিয়ে জল্পনার পারদ চড়ছে। জানা গিয়েছে, শিশির অধিকারীর পায়ে অস্ত্রোপচার হয়েছে। তাই তিনি মমতার সভায় থাকছেন না। আরও জানা গিয়েছে, অধিকারী পরিবারের আর এক সাংসদ দিব্যেন্দুও এ দিনের সভায় থাকছেন না। কিন্তু যাঁকে ঘিরে ক্রমশ জল্পনা দানা বাঁধছে, সেই শুভেন্দু? নন্দীগ্রামের বিধায়কের ঘনিষ্ঠ মহল সুত্রে খবর, সোমবার তাঁর থাকার কথা কলকাতায়। অর্থাৎ শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদল না হলে এ দিনের জনসভায় অধিকারী বাড়ির কোনও সদস্যেরই থাকার সম্ভাবনা প্রায় নেই।

বাঁ দিক থেকে সেখ সুফিয়ান, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, অখিল গিরি, সোমনাথ দে, ফিরোজা বিবি এবং অর্ধেন্দু মাইতি। নিজস্ব চিত্র

তৃণমূলের জেলা নেতৃত্ব সূত্রে খবর, দুই মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রাম জেলার সব বিধায়ক-সাংসদকে মেদিনীপুরের সভায় যেতে বলেছেন তৃণমূল নেত্রী। পূর্ব মেদিনীপুরে তমলুক ও কাঁথি দুই কেন্দ্রেরই সাংসদ অধিকারী পরিবারের— শিশির এবং দিব্যেন্দু। জেলায় দলের বিধায়ক সংখ্যা ছিল ১২। তার মধ্যে এগরার বিধায়ক সমরেশ দাশ প্রয়াত। শুভেন্দু নিজেও বিধায়ক। বাকি ১০ জন বিধায়কের সবাই মমতার সভায় শেষ পর্যন্ত থাকেন কি না, সে দিকেও নজর রয়েছে গোটা রাজ্যের।

আরও পড়ুন: মমতা-অভিষেকের ব্যানারের পাশেই মেদিনীপুরের ‘ভূমিপুত্র’ শুভেন্দুর ব্যানার ঘিরে রাজনৈতিক তরজা

আরও পড়ুন: বিজেপি আজ ঝাঁপাচ্ছে শিলিগুড়িতে, উপস্থিত দিলীপ-মুকুল-কৈলাসরা

দলের পক্ষ থেকে মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন রাস্তা সাজানো হয়েছে দলীয় পতাকা দিয়ে। সঙ্গে রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবিও। এই আবহেই সোমবার মেদিনীপুর শহরে শুভেন্দুর ছবি দেওয়া ফ্লেক্সও নজরে এসেছে। তাতে লেখা, ‘‘মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শ্রী শুভেন্দু অধিকারী’’। যেখানে তৃণমূলের তরফে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি লাগানো হয়েছে তার সামনে এবং পিছনে লাগানো হয়েছে ওই ফ্লেক্স। এই ঘটনায় শুভেন্দুকে ঘিরে তৈরি হওয়া গুঞ্জন আরও গতি পেয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE