Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Netaji Subhas Chandra Bose: নেতাজির জন্মদিনকে জাতীয় ছুটি ঘোষণা করুক কেন্দ্র, আবার সরব মুখ্যমন্ত্রী মমতা

২৩ জানুয়ারি দিনটিকে ‘দেশনায়ক দিবস’ হিসাবে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। বিজেপি-র পক্ষ থেকে দিনটিকে ‘পরাক্রম দিবস’ হিসাবে তুলে ধরা হয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৩ জানুয়ারি ২০২২ ১০:১৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
নেতাজি নিয়ে ফের সরব মুখ্যমন্ত্রী মমতা

নেতাজি নিয়ে ফের সরব মুখ্যমন্ত্রী মমতা
ফাইল চিত্র

Popup Close

নেতাজির জন্মদিনে জাতীয় ছুটি ঘোষণা করা হোক। আবার দাবি তুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টুইট করে শ্রদ্ধা জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও।
রবিবার নেতাজির ১২৫তম জন্মজয়ন্তীতে মমতা একাধিক টুইট করেন। সেখানে লেখেন, ‘আমরা আবার কেন্দ্রীয় সরকারকে আর্জি জানাচ্ছি, নেতাজির জন্মদিনটিকে জাতীয় ছুটি হিসাবে ঘোষণা করা হোক। এর ফলে গোটা জাতি নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানাতে পারবে এবং ‘দেশনায়ক দিবস’ পূর্ণমর্যাদায় পালন করতে পারবে।’ রবিবার টুইট করে নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানান তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও।
প্রসঙ্গত, ২৩ জানুয়ারি দিনটিকে ‘দেশনায়ক দিবস’ হিসাবে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি-র তরফ থেকে দিনটিকে ‘পরাক্রম দিবস’ হিসাবে পালন করা হয়। গত বছর এ নিয়ে দুই শিবিরের তরজাও প্রত্যক্ষ করা গিয়েছিল। রবিবার সকালে টুইট করে নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। তবে গত বছরে মতো এ বার তাঁর টুইটে ‘পরাক্রম দিসব’-এর উল্লেখ ছিল না। মোদী লেখেন, ‘নেতাজির জন্মজয়ন্তিতে তাঁর কাছে মাথা নত করছি। আমাদের জাতির জন্য তাঁর যে আত্মত্যাগ, তা প্রত্যেক ভারতবাসীর গর্ব।’

Advertisement

সরকারের একাধিক কর্মসূচির পাশে রবিবার মমতা কিন্তু নেতাজিকে নিয়ে পক্ষান্তরে চাপ বাড়ালেন কেন্দ্রের উপর। মমতা লেখেন, ‘এ বছর সাধারণতন্ত্র দিবসের প্যারেডে নেতাজিকে নিয়ে ট্যাবলো করা হবে।’ সঙ্গে লেখেন, ‘নেতাজির চিন্তাধারার থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলায় যোযোনা কমিশন গঠন করা হবে। যা রাজ্যের বিভিন্ন পরিকল্পনার দেখভাল করবে। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সহযোগিতার মাধ্যমে ‘জয় হিন্দ বিশ্ববিদ্যালয়’ তৈরি করা হবে। এই বিশ্ববিদ্যালয় তৈরিতে রাজ্য ১০০ শতাংশ অর্থ দেবে।’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement