Advertisement
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

চোলাই-অভিযানে ধৃত ৪

বিশেষ ওই অভিযানে বাজেয়াপ্ত হয়েছে ১৫৮ লিটার চোলাই, এক হাজার লিটার চোলাই তৈরির কাঁচামাল এবং ৩৪ লিটার দেশি মদ।

হেঁসেল: এখানেই তৈরি হয় চোলাই। ছবি: কিংশুক আইচ

হেঁসেল: এখানেই তৈরি হয় চোলাই। ছবি: কিংশুক আইচ

নিজস্ব সংবাদদাতা
তমলুক শেষ আপডেট: ৩০ নভেম্বর ২০১৮ ০৩:৩৭
Share: Save:

বিষমদে নদিয়ার শান্তিপুরে সম্প্রতি মৃত্যু আট জনের। সেই কাণ্ডের জেরে বুধবার পূর্ব মেদিনীপুরের বিভিন্ন এলাকায় বেআইনি মদের ব্যবসার বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেফতার করল আবগারি দফতর। বিশেষ ওই অভিযানে বাজেয়াপ্ত হয়েছে ১৫৮ লিটার চোলাই, এক হাজার লিটার চোলাই তৈরির কাঁচামাল এবং ৩৪ লিটার দেশি মদ।

জেলা আবগারি দফতর সূত্রে খবর, বুধবার বিকেল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত তমলুক, পাঁশকুড়া, কোলাঘাট, চণ্ডীপুর, মহিষাদল, সুতাহাটা, ভবানীপুর, মারিশদা, কাঁথি এবং পটাশপুর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে মোট ১১টি চোলাই তৈরির ভাটি ভাঙা হয়েছে। পাঁশকুড়া থানার সাইতা, মানুয়া, ছয়রাশিয়া, মহিষাদল থানার পূর্ব শ্রীরামপুর, ভবানীপুর থানার কসবেড়িয়া এবং সুতাহাটা থানার ডিহি-শিবরামনগর গ্রামে চোলাই তৈরির ঘাঁটিগুলিতে এ দিন অভিযান চালিয়ে প্রায় ১৫৮ লিটার চোলাই মদ এবং এক হাজার লিটার চোলাই তৈরির সরঞ্জাম এবং একটি সাইকেল বাজেয়াপ্ত করে আবগারি দফতর। বেআইনি ভাবে মদ ব্যবসা করার অভিযোগে তমলুক থানার নীলকুন্ঠ্যা গ্রাম থেকে মধুসূদন কুইল্যা, শতদল মাইতি, পাঁশকুড়া থানার রাতুলিয়া থেকে অশ্বিনী দোলই এবং চণ্ডীপুরের নাটেশ্বরীচক গ্রাম থেকে গণেশ পাহাড়িকে গ্রেফতার করে আবগারি বাহিনী।

পূর্ব মেদিনীপুরের আবগারি আধিকারিক মানিক সরকার বলেন, ‘‘বুধবার জেলা জুড়ে বিশেষ অভিযান চালানো হয়। এবার ধারাবাহিক ভাবেই অভিযান চলবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE