Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

উপ-নির্বাচন

ভোট প্রচারে তরজা নোট নিয়ে

নোট বদল বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিজেপি বিরোধী লড়াইয়ের ডাক দেওয়া নিয়ে কড়া সমালোচনা করলেন রায়গঞ্জের সিপিএম সাংসদ তথা দলের পলি

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৫ নভেম্বর ২০১৬ ০০:৩১

নোট বদল বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিজেপি বিরোধী লড়াইয়ের ডাক দেওয়া নিয়ে কড়া সমালোচনা করলেন রায়গঞ্জের সিপিএম সাংসদ তথা দলের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। তমলুক লোকসভা উপ-নির্বাচনে সিপিএম প্রার্থীর হয়ে প্রচার করতে এসে সোমবার তমলুক শহরের রাধাবল্লভপুর ফুটবল ময়দানে আয়োজিত সভায় সেলিম বলেন, ‘‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কথা বলতে পারেন? উনি নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহকে ধরে নিজের মন্ত্রীদের, বিধায়কদের চিটফান্ডের কেলেঙ্কারি থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন। যারা নিজেরা দুর্নীতিগ্রস্ত তাঁরা দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে না।’’

এ দিন সেলিম আরও বলেন, ‘‘তৃণমূল নেত্রীর এখন আর সে বাজার নেই। এখন যদি সেরকম বাজার থাকত তাহলে উনি বলতেন একবারে ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে দেখে নেব। এখন যেই বাজার খারাপ হয়েছে, ফেঁসে গিয়েছেন, এখন উনি বলছেন সীতারাম একটু দেখে নে ভাই।’’ সঙ্গে তাঁর সংযোজন, ‘‘মোদী যে পথে গিয়েছেন তাতে কালো টাকা উদ্ধার হবে না। এটা কালো টাকা আটকানোর পথ নয়। আর তৃণমূল নেত্রী যেভাবে মোদীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কথা বলছেন তাঁর মধ্যে কৌশল রয়েছে। উনি নিজে দিল্লি যাওয়ার কথা বলছেন। এই সুযোগে মোদী ও জেটলির সঙ্গে রফা করতে যাচ্ছেন।’’

দেশের মানুষকে আর্থিক কষ্ট দেওয়ার জন্য মোদীর সরকারকে মানুষ ছুঁড়ে ফেলে দেবে। সোমবার মহিষাদলের নামালক্ষ্যা বাজারে তমলুক লোকসভা কেন্দ্রের উপ-নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী দিব্যেন্দু অধিকারর সমর্থনে প্রচারে এমন কথাই বললেন রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তাঁর কথায়, ‘‘দেশের মানুষের টাকা বন্ধ করে দিতে পারেন। কিন্তু হৃদয়ের শব্দ বন্ধ করতে পারবেন না। মানুষকে এই আর্থিক কষ্ট দেওয়ার জন্য মানুষ আপনাকে ছুঁড়ে ফেলে দেবে।’’ তিনি সিপিএম এবং কংগ্রেস দুই দলকের কটাক্ষ করেন। এ দিন এই সভায় পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীও যোগ দেন। সুতাহাটা ও হলদিয়া টাউনশিপে সভা করেন পুরমন্ত্রী।

Advertisement

তমলুক লোকসভা উপ নির্বাচনে সিপিএম প্রার্থী মন্দিরা পন্ডার সমর্থনে রোড শো করলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য রবীন দেব৷ সোমবার সকালে রেয়াপাড়া থেকে রোড শো শুরু হয়ে ঘোলপুকুর হয়ে নন্দীগ্রাম বাসস্ট্যান্ডে আসে৷ তবে এ দিন কোনও বক্তব্য রাখেননি তিনি। রবীন দেব, প্রার্থী মন্দিরা পণ্ডা প্রমুখ নন্দীগ্রাম বাজারের ভিতরে মানুষদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

নোট বদল করে দেশের প্রধানমন্ত্রী আসলে রাজনীতি করেছ বলে মন্তব্য করলেন রাজ্যের সেচমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার সুতাহাটার অন্তর্গত শালুকখালি এলাকায় দিব্যেন্দু অধিকারীর সমর্থনে সভায় যোগ দেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘‘বিদেশ থেকে কালো টাকা আনতে পারেননি প্রধানমন্ত্রী। তাই সেই ব্যর্থতার মুখ ঘোরাতে নোট বদল করেছেন। আসলে প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষের সঙ্গে রাজনীতি করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী যখন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করছেন তখন এইসব করে দেশে বিভেদ তৈরি করছেন প্রধানমন্ত্রী।”

আরও পড়ুন

Advertisement