Advertisement
২১ জুন ২০২৪
Weather Update in Bengal

শুক্রবার থেকে প্রাক্‌-বর্ষার বৃষ্টিতে পুরো দক্ষিণবঙ্গ ভিজবে, বর্ষা আসবে কবে? কী বলছে হাওয়া অফিস?

প্রাক্‌-বর্ষা আসার আগে আপাতত তিন দিন গরম এবং অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের তিন জেলায় তীব্র তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে হাওয়া অফিস।

—ফাইল চিত্র ।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ জুন ২০২৪ ১৮:৫৫
Share: Save:

আগামী শুক্রবারের আগে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা আগমনের কোনও সম্ভাবনা নেই। দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমি বায়ু প্রবেশ করতে পারে শুক্রবারের পরেই। তবে তার আগেই দক্ষিণবঙ্গে শুরু হবে প্রাক্‌-বর্ষার বৃষ্টি। ফিরবে স্বস্তি। তেমনটাই জানা গিয়েছে হাওয়া অফিস সূত্রে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢুকতে এখনও দিন কয়েক বাকি থাকলেও বৃহস্পতিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়ায় পরিবর্তন আসতে পারে। প্রাক্‌-বর্ষার বৃষ্টিতে দহনজ্বালা থেকে মুক্তি পেতে পারে দক্ষিণের বেশ কয়েকটি জেলা।

আবহবিদেরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার দক্ষিণবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, দুই বর্ধমান, নদিয়া, বীরভূম এবং মুর্শিদাবাদ বৃষ্টিতে ভিজতে পারে। সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ এবং ঝোড়ো হাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। শুক্রবার থেকে ঝড়বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে। পাশাপাশি, কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সব জেলাতেই প্রাক্‌ বর্ষার বৃষ্টি শুরু হবে শুক্রবার থেকেই। রবিবার পর্যন্ত সেই বৃষ্টি চলবে।

তবে হাওয়া অফিস এ-ও জানিয়েছে, প্রাক্‌-বর্ষা আসার আগে আপাতত তিন দিন গরম এবং অস্বস্তিকর পরিস্থিতি থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিম মেদিনীপুর, পুরুলিয়া এবং পশ্চিম বর্ধমানে তীব্র তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে হাওয়া অফিস। বৃহস্পতিবার এই তিন জেলায় বৃষ্টিপাতের সঙ্গে ঝড়ের সম্ভাবনাও রয়েছে। পাশাপাশি, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান, বীরভূম এবং হুগলিতেও বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করেছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। কলকাতা-সহ বাকি জেলায় গরম এবং অস্বস্তিকর আবহাওয়া থাকবে। আগামী ৪৮ ঘণ্টা দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া পরিবর্তনের কোনও সম্ভাবনা নেই।

কিন্তু কেন বর্ষা আসতে দেরি হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে? এই প্রসঙ্গে, আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান সোমনাথ দত্ত বলেন, ‘‘এই মুহূর্তে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষার অনুকূল পরিস্থিতি নেই। দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমী বায়ু কোন দিকে অগ্রসর হচ্ছে, তা-ও এখন বলা যাচ্ছে না। তবে ১৪ জুনের আগে আমরা বর্ষার আগমন সম্পর্কে কিছু জানাতে পারছি না।’’

উল্লেখ্য, দক্ষিণবঙ্গে এখনও বর্ষা প্রবেশ না করলেও ভাসছে উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা। মঙ্গলবারও দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে। সোমবার মুষলধারে বৃষ্টির জেরে শিলিগুড়ি শহরের একাধিক এলাকা জলমগ্ন। মঙ্গলবারেও পাহাড় থেকে সমতলে চলছে ব্যাপক বৃষ্টিপাত। বুধবার বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরও বাড়তে পারে বলেই জানিয়েছে হাওয়া অফিস। পাশাপাশি, বুধবার উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি, কোচবিহার এবং আলিপুরদুয়ার— এই তিন জেলায় বৃষ্টিপাতের লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE