Advertisement
২৪ জুলাই ২০২৪

সার্ধশতবর্ষে নিবেদিতাকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন রামকৃষ্ণ মঠের

রবিবার বিকেলে বাগবাজারে ফণিভূষণ বিদ্যাবিনোদ যাত্রা মঞ্চে ‘ভারত চেতনায় ভগিনী নিবেদিতা’ নামের বই প্রকাশ করলেন রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ।

স্মরণ: ভগিনী নিবেদিতার জন্মের সার্ধশতবর্ষে বই প্রকাশ। রয়েছেন (বাঁ দিক থেকে) স্বামী নিত্যমুক্তানন্দ, স্বামী বলভদ্রানন্দ, স্বামী সুবীরানন্দ, স্বামী পূর্ণাত্মানন্দ, স্বামী চৈতন্যানন্দ প্রমুখ। রবিবার, বাগবাজারের ফণিভূষণ বিদ্যোবিনোদ যাত্রামঞ্চে। নিজস্ব চিত্র

স্মরণ: ভগিনী নিবেদিতার জন্মের সার্ধশতবর্ষে বই প্রকাশ। রয়েছেন (বাঁ দিক থেকে) স্বামী নিত্যমুক্তানন্দ, স্বামী বলভদ্রানন্দ, স্বামী সুবীরানন্দ, স্বামী পূর্ণাত্মানন্দ, স্বামী চৈতন্যানন্দ প্রমুখ। রবিবার, বাগবাজারের ফণিভূষণ বিদ্যোবিনোদ যাত্রামঞ্চে। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ১৬ অক্টোবর ২০১৭ ০২:৩৮
Share: Save:

বিদেশিনি হয়েও তিনি ভারতীয় সভ্যতা, সংস্কৃতি, সৃষ্টি ও লোকাচারের সঙ্গে একাত্ম হয়েছিলেন। তাঁর জীবনের মূল মন্ত্রই ছিল ভারতবর্ষ। সেই বিদেশি নারী ভগিনী নিবেদিতার জন্মের সার্ধশতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করল রামকৃষ্ণ মঠ, বাগবাজার।

সেই উপলক্ষে রবিবার বিকেলে বাগবাজারে ফণিভূষণ বিদ্যাবিনোদ যাত্রা মঞ্চে ‘ভারত চেতনায় ভগিনী নিবেদিতা’ নামের বই প্রকাশ করলেন রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ। এ দিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রামকৃষ্ণ মঠ, বাগবাজারের সম্পাদক স্বামী নিত্যমুক্তানন্দ, উদ্বোধন পত্রিকার সম্পাদক স্বামী চৈতন্যানন্দ, স্বামী বিবেকানন্দের পৈতৃক আবাস ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সম্পাদক স্বামী পূর্ণাত্মানন্দ, রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সহ-সাধারণ সম্পাদক স্বামী বলভদ্রানন্দ। সঙ্গীত পরিবেশন করেন রামকৃষ্ণ মঠ, শ্যামপুকুর বাটীর স্বামী দিব্যব্রতানন্দ।

এ দিনের ভক্ত সম্মেলনে ভগিনী নিবেদিতা ও বর্তমান প্রাসঙ্গিকতা বিষয়ে বক্তব্যের শুরুতে স্বামী পূর্ণাত্মানন্দ বলেন, ‘‘এত দিন পর্যন্ত নিবেদিতার প্রতি কোনও শ্রদ্ধা, আগ্রহ সমাজের সর্ব স্তরে লক্ষ্য করা যায়নি। তবে এখন দেখা যাচ্ছে। তাঁর জন্মের সার্ধশতবর্ষে মানুষের মধ্যে আলোড়ন তৈরি হয়েছে।’’ ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামীদের উপরে নিবেদিতার কতটা প্রভাব ছিল, সে বিষয়েও বক্তব্য রাখেন স্বামী বলভদ্রানন্দ। তিনিও শুরুতে জানান, স্বামী বিবেকানন্দই নিবেদিতাকে ভারতীয় ও হিন্দু করে তুলেছিলেন। পরে তিনিই সকল ভারত সন্তানের মা হয়ে উঠেছিলেন।

তবে এ দিন যে বই প্রকাশ পেয়েছে, সেটি ভগিনী নিবেদিতার জীবনী গ্রন্থ নয় বলেই জানান স্বামী চৈতন্যানন্দ। নিবেদিতার চিন্তাধারা এবং বহুমুখী প্রতিভার উপরে ভিত্তি করেই এই বইটি প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে বহু বছর আগে উদ্বোধন পত্রিকায় প্রকাশ হওয়া লেখাও যেমন আছে, তেমনই এক জন বিদেশিনি কী ভাবে ভারতীয় হয়ে উঠেছিলেন, রয়েছে তার বর্ণনা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE