Advertisement
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
CBI

Rampurhat Clash: গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়ে বিশদ তথ্য সংগ্রহ করুন! জেলার পুলিশ সুপারদের কড়া নির্দেশ ডিজি-র

তবে ডিজির নির্দেশের পরে অনেকের ধারণা, বগটুই কাণ্ডের জেরে নবান্নের তৎপরতা পুর বোর্ড গঠনের পরেই শেষ হবে না। কারণ, কত দিন নজরদারি করতে হবে তার কোনও নির্দিষ্ট তারিখ ডিজির নির্দেশিকায় নেই।

পুড়ে যাওয়া বাড়ির আশেপাশে ঘুরে দেখছেন সিবিআই আধিকারিকেরা। শনিবার বগটুইয়ে।

পুড়ে যাওয়া বাড়ির আশেপাশে ঘুরে দেখছেন সিবিআই আধিকারিকেরা। শনিবার বগটুইয়ে। ছবি: সব্যসাচী ইসলাম ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ মার্চ ২০২২ ০৭:০২
Share: Save:

বীরভূমের বগটুই কাণ্ডের তদন্তের ভার সিবিআইয়ের হাতে সঁপেছে কলকাতা হাই কোর্ট। কোর্টের নির্দেশ, এই ঘটনায় রাজ্য সরকার কোনও তদন্ত করতে পারবে না। প্রশাসনিক সূত্রের দাবি, বগটুইয়ের তদন্ত না করলেও রাজ্যে রাজনৈতিক বিরোধ এবং শাসক দলের গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের ব্যাপারে গোয়েন্দা তৎপরতা জারি থাকবে। কারণ, বগটুইয়ের পরে শাসক দলের গোষ্ঠী কোন্দল সামনে এসেছে। তা ছাড়াও, সম্প্রতি দুই কাউন্সিলর-সহ খুনের ঘটনাগুলিতে রাজনৈতিক শত্রুতার বিষয়ও উঠে এসেছে। তবে প্রশাসনের দাবি, এই গোয়েন্দা তৎপরতা মূলত তথ্য সংগ্রহ (ইন্টেলিজেন্স)। তদন্তের সঙ্গে এর কোনও যোগসূত্র নেই। বরং আইনশৃঙ্খলা রক্ষার সঙ্গে গোয়েন্দা তৎপরতার বিষয়টি নিবিড় ভাবে যুক্ত।

Advertisement

সম্প্রতি রাজ্য পুলিশের ডিজি জেলার পুলিশ সুপার এবং পুলিশ কমিশনারদের রাজনৈতিক বৈরিতা এবং গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের বিশদ তথ্য সংগ্রহের নির্দেশ দিয়েছেন। কোনও গোলমালের আঁচ পেলেই পদক্ষেপ করতে বলেছেন ডিজি।

১৩ মার্চ একই দিনে ঝালদা এবং পানিহাটিতে দুই কাউন্সিলর খুন হন। ঘটনাচক্রে, ১৬ মার্চ রাজ্যের এডিজি (আইবি) নীরজকুমার সিংহকে বদলি করে নবান্ন। তাঁর জায়গায় নতুন দায়িত্ব দেওয়া হয় আরেক আইপিএস রাজীব মিশ্রকে। তবে প্রশাসনিক কর্তাদের মতে, রাজ্য আইবি-র শীর্ষ পদে বদলি এবং তার পরে ডিজির গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধির নির্দেশ আইনশৃঙ্খলা নিয়ে কড়া পদক্ষেপের ইঙ্গিতবাহী। তাঁরা এও মনে করিয়ে দিচ্ছেন, জোড়া কাউন্সিলর খুনের ঘটনার পরে স্বয়ং মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী জেলা প্রশাসন এবং পুলিশ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা এবং নতুন পুর বোর্ড গঠন নিয়ে ঝামেলাও যে চাইছে না নবান্নের শীর্ষমহল। নির্বিঘ্নে সেই প্রক্রিয়া শেষ করতে জেলাশাসক, পুলিশ সুপার, কমিশনার এবং গোয়েন্দা বিভাগকেও সক্রিয় হতে বলা হয়েছিল। স্পর্শকাতর এলাকাগুলিতে বাড়তি নজর রাখতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল পুলিশকে।

তবে ডিজির নির্দেশের পরে অনেকের ধারণা, বগটুই কাণ্ডের জেরে নবান্নের তৎপরতা পুর বোর্ড গঠনের পরেই শেষ হবে না। কারণ, কত দিন নজরদারি করতে হবে তার কোনও নির্দিষ্ট তারিখ ডিজির নির্দেশিকায় নেই।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.