Advertisement
৩১ জানুয়ারি ২০২৩

পুরভোটের সময়সীমা বৃদ্ধির দাবি তৃণমূলের

পুরভোটের সময়সূচি পরিবর্তনের জন্য রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সুশান্তরঞ্জন উপাধ্যায়ের কাছে দাবি জানিয়েছে শাসক দল। এই দাবি নিয়ে বৃহস্পতিবার কমিশনারের সঙ্গে দেখা করেন রাজ্যের মন্ত্রী থেকে শুরু করে কলকাতা পুরসভার মেয়র। সকালে কমিশনারের কাছে যান মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, অরূপ বিশ্বাস এবং মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। পরে সেখানে যান শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ মার্চ ২০১৫ ০৩:৩৭
Share: Save:

পুরভোটের সময়সূচি পরিবর্তনের জন্য রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সুশান্তরঞ্জন উপাধ্যায়ের কাছে দাবি জানিয়েছে শাসক দল। এই দাবি নিয়ে বৃহস্পতিবার কমিশনারের সঙ্গে দেখা করেন রাজ্যের মন্ত্রী থেকে শুরু করে কলকাতা পুরসভার মেয়র। সকালে কমিশনারের কাছে যান মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, অরূপ বিশ্বাস এবং মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। পরে সেখানে যান শিক্ষামন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও।

পুরভোট গ্রহণের সময় সকাল ৭টা থেকে বিকেল ৩টার পরিবর্তে আরও দু’ঘণ্টা বাড়িয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত করার দাবি জানান তাঁরা। সুব্রতবাবুর প্রশ্ন, “লোকসভা বা বিধানসভা ভোট যে ভোটার তালিকা অনুসারে হচ্ছে, সেই তালিকা ধরেই পুরভোট হচ্ছে। তবে পুরভোটে কেন দু’ঘণ্টা সময় কম করা হয়েছে?” এ বিষয়ে আলোচনার জন্য কমিশন শনিবার দুপুরে আবার সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে। কমিশনার বলেন, “রাজ্যের পুর নির্বাচনী আইনের ৮ ধারায় বলা আছে, রাজ্য সরকার পুরসভার ভোটের দিন এবং ভোট গ্রহণের সময় ঠিক করবে। কমিশন রাজ্য সরকারের বিজ্ঞপ্তির ভিত্তিতে নির্বাচনী নির্ঘণ্ট প্রকাশ করবে।” রাজ্য সরকারই ভোটের সময়সীমা ঠিক করার পরেও শাসক দল কেন সময় বৃদ্ধির দাবি তুলছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বামফ্রন্ট। রবীন দেবের কথায়, “সরকারই সময় ঠিক করেছে। এখন মন্ত্রীরা সময় বাড়ানোর দাবি জানাচ্ছেন। তার ভিত্তিতে কমিশন সর্বদলীয় বৈঠক ডাকছে। তা থেকেই প্রমাণিত কমিশন সরকারের নির্দেশে চলছে।” পুরভোটের সময়সীমা নিয়ে তাঁদের দলে এখনও কোনও আলোচনা হয়নি বলে জানান রাজ্য বিজেপি-র সহ-সভাপতি প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়। কংগ্রেস নেতা মানস ভুঁইয়াও বলেন, “সর্বদলীয় বৈঠকে দলীয় নেতৃত্ব সিদ্ধান্ত জানাবেন।” পুরভোটের বিজ্ঞপ্তি জারির পরেও তিন মন্ত্রী দলীয় কাজে কমিশনে লালবাতি লাগানো গাড়ি চড়ে গিয়েছিলেন বলে কমিশনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন রবীনবাবু।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.